মুক্ত বিচরণ

মুক্ত বিচরণ

পর্ন আসক্তি ছাড়ার জন্য পর্ন ওয়েব সাইট ব্লক করার সফটওয়্যার বা অ্যাপ্স ইনস্টল করা খুবই জরুরী। “পর্ন দেখতে মন চাইলো, হাতের মুঠোয় হাইস্পিড ইন্টারনেট, দুটো ক্লিক, তারপর পর্ন মুভির বিশাল ভান্ডার”, এরকম অবস্থায় থাকলে পর্ন আসক্তি থেকে বের হয়ে আসা দুঃসাধ্য। এই লেখায় আপনি অনলাইনের ফিতনা মোকাবেলার কিছু রসদ পেয়ে যাবেন ইনশা আল্লাহ্‌।

.

পর্ন ব্লক রাখার পদ্ধতি

.

১. রাউটার থেকে যেভাবে বন্ধ করবেন পর্ন সাইটঃ

.

যাদের জন্য উপযোগী – ব্রডব্যান্ড ইউজার যারা রাউটারের মাধ্যমে ডিভাইসে ইন্টারনেট এক্সেস করেন।
সমাধানCleanBrowsing DNS 
.
এই পদ্ধতি আমি দেখাচ্ছি tplink রাউটারের ক্ষেত্রে, তবে প্রায় সব রাউটারে এই অপশনগুলো আছে জাস্ট আপনাকে খুজে নিতে হবে। (প্রয়োজন হলে তাদের ইন্সট্রাকশন পড়ে নিন)।
প্রথমে আপনি আপনার রাউটারে লগিন করুন। tplink রাউটারের জন্যে এই লিংক ইউজ করুন। http://tplinkwifi.net/ বা http://192.168.0.1/ , এরপর আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করুন। এক্সেস করার পর হাতের বামে দেখুন DHCP নামে একটি option আছে ক্লিক করুন। এরপর দেখুন নিচে দুইটা অপশন আছে-
.
১। DNS Server
২। Secondary DNS Server
.
ওখানে নিচের দেয়া দুইটা ডিএনএস সার্ভার কপি-পেস্ট করে বসিয়ে দিন।
DNS Server: 185.228.168.168
Secondary DNS Server:
185.228.169.168
.
save করুন। তারপর আবার হাতের বামে system tools নামে একটি option আছে ওটাতে ক্লিক করুন। দেখুন reboot নামে অপশন আছে ওটাতে ক্লিক করুন। এতক্ষণ রাউটারে যে প্রসেসসগুলো করলাম তা ঠিক মত যেন কাজ করে তাই রিবুট দিলাম। একটু সময় নিবে।
এরপর থেকে আপনার রাউটার থেকে কেউ পর্ন সাইটে প্রবেশ করতে পারবে না। এমনকি আপনিও।
এতটুকু করলে আর আপনাকে কষ্ট করে গুগলে বা ইউটিউবেও Safe Search অপশন অন করা লাগবে না, বাই ডিফল্ট অন থাকবে। আর মোবাইলেও আলাদা করে কোন পর্ন ব্লকার/ DNS এড্রেস ইউজ করা লাগবে না। (যতক্ষণ আপনি কনফিগারড রাউটারের আওতায় নেট ইউজ করছেন আপনার মোবাইলে)
.

২. যারা সরাসরি PC তে ইথারনেট ক্যাবল কানেক্ট করেনঃ

নেটওয়ার্ক সেটিং থেকে DNS এড্রেস চেইঞ্জ করে নিন।

.

৩. অপারেটর এর ডেটা ইউজ করে মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করলেঃ

.
Android এর ক্ষেত্রে, Spin Browser + AppLock এর সমন্বয়।

এটি আমাদের পছন্দের পদ্ধতি। বেশ কার্যকরী। প্রয়োজনীয় এই অ্যাপ্সগুলো নামিয়ে নিন,

Spin Browser  – http://bit.ly/2cJ5ufM
App Lock – https://tinyurl.com/k5zk2zr

ভিডিও টিউটোরিয়াল-   http://bit.ly/2FlCLcI

উল্লেখ্য,

১। Message (Default Application যেটা) লক করার দরকার নেই। Spin Browser বাদে বাকি সব ব্রাউজার আর ব্রাউজার নামানোর মাধ্যম বন্ধ করবেন।
২। যেহেতু Google Play লক রাখতে হবে, এখন যদি কখনো কোন এপ্লিকেশন নামানোর প্রয়োজন হয়, যার মাধ্যমে লক করিয়েছেন উনাকে দিয়ে আনলক করিয়ে নামিয়ে নিবেন।
৩। App Lock এর নতুন ভার্শনে Advanced Protection অপশনটা পাবেন Protect > General মেন্যুতে।
৪। পাশাপাশি আরেকটা অপশন অন করতে পারেন Protect > General > Hide AppLock

** রাউটার এর পাসওয়ার্ড ও App Lock এর প্যাটার্ন আপনি নিজে জানলে এতকিছু করে লাভ হবে না, তীব্র আকাঙ্ক্ষার মুহূর্তে সব Uninstall করে বসবেন। তাই পর্ন ব্লকের ক্ষেত্রে যা যা বলা হল সেগুলো এমন কাউকে দিয়ে করাবেন যিনি আপনাকে কখনো আনলক করার সুযোগ দিবেন না। 

 

———-

এড ব্লক রাখার পদ্ধতি

.

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে ইন্টারনেট ইউজ করে না এমন লোক খুঁজে পাওয়া ভার। এই ইন্টারনেটের যেমন সুযোগ সুবিধা আছে, ঠিক তেমনি ভাবে এর অপকারিতার লিষ্টও বেশ লম্বা। দৈনন্দিন নানা কাজে আমাদের ইন্টারনেট ইউজ করতে হয়। যারা নিয়মিত ইন্টারনেট ইউজ করি, তারা খুব ভালো মতই জানি যে বিভিন্ন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করার ফলে, আমরা বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন দেখতে পাই। এই বিজ্ঞাপন যেমন বিভিন্ন প্রোডাক্টের হয়ে থাকে ঠিক একে ঘিরে রয়েছে অশ্লীলতাও। বিজ্ঞাপনে এখন অর্ধ-নগ্ন নারী থাকা যেন স্বাভাবিকে পরিনত হয়েছে। আসলে এ বিজ্ঞাপনের ফাঁকে ফাঁকে আমাদের কাছে চলে আসে অপ্রত্যাশিত কিছু, বিভিন্ন পর্ন সাইট। যেমন আপনি নেট ব্রাউজ করতে করতে হঠাৎ খেয়াল করলেন থ্রি ডি গেমস, ক্লিক করার সাথে সাথে আপনাকে নিয়ে চলে যাবে গেমসের পর্নোগ্রাফির ওয়ার্ল্ডে। এছাড়াও বিভিন্ন সাইটে ব্রাউজ করার সময় বিরক্তিকর বিজ্ঞাপন দেখতে পাই। এর থেকে বাচার উপায় কি? আর এই চরম বিরক্তিকর বিজ্ঞাপন থেকে আমরা কিভাবে শান্তি মত ব্রাউজ করতে পারি তার কয়েকটি টেকনিক আজকে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।

.

PC এর ক্ষেত্রেঃ

১. Vivaldi ব্রাউজার ব্যবহার করুন। বাই ডিফল্ট এড ব্লক করে।
অথবা,
২. Adblock plus এক্সটেনশন ইউজ করতে পারেন, বেশ ভালো এক্সটেনশন। (নামানোর লিঙ্কঃ google chrome/ Chromium-based Browser এর জন্য, firefox এর জন্য)। Adblock Plus এর জন্য Facebook annoyence blocker নামের একটা প্লাগইন আছে, ওটা ইন্সটল করলে ফেসবুক অ্যাড ব্লক করতে আর কিছু লাগবে না।
অথবা,
৩. ublock origin -এটিও ইউজ করতে পারেন, বেশ হালকা এবং কাজের দিক থেকে বেশ পটু। (নামানোর লিঙ্কঃ google chrome এর জন্য, firefox এর জন্য) । তবে এই এক্সটেনশন ফেসবুকের বিজ্ঞাপন দূর করতে পারে না বিশেষ করে sponsored ad গুলো। 
.
ফেসবুক এর sponsored ad, friends you may know, page/group suggestion এই ট্যাবগুলো যথেষ্ট ফিতনাময় ও অনেকাংশে অশ্লীলও বটে । এক্ষেত্রে আমরা সাজেস্ট করি fb purity এক্সটেনশনটি। খুবই চমৎকার, ইচ্ছামত কাস্টোমাইজ করে নেয়া যায় হোমপেজ।
.

Android এর ক্ষেত্রেঃ

AdGuard Premium এপ নামিয়ে ইন্সটল করে শুধু অন করে দিন। কাজ শেষ। যত এপ আছে সবগুলোর এড ব্লক করে দিবে।
ডাউনলোড লিংক- https://tinyurl.com/Adguard3514

.

তাহলে মোবাইলের ক্ষেত্রে পর্ন + এড ব্লক এর সারসংক্ষেপ হচ্ছে, Router Configuration + AdGuard Premium , ব্রাউজার হিসেবে Spin Browser । বাসায় WiFi ইউজ করলে Router কনফিগার করে নিবেন। তখন মোবাইলে AppLock লাগবে না। কিন্তু Operator Data ইউজ করে নেট চালানোর ক্ষেত্রে AppLock দিয়ে শুধু Spin Browser – ই চালাবেন, তাছাড়া প্রটেকশন পাবেন না।

———-

For iOS devices

– Safari তে Ad block করার জন্য এই এপটি ইউজ করতে পারেন। এটি এডাল্ট সাইটও ব্লক করে। এপটি ওপেন করে Block ads, protect privacy, block adult sites অপশনগুলো ON করে দিন।
– নানা কাজের জন্যে আমরা নানান এপ ইউজ করে থাকি। এর সিংহভাগ এপেই আছে বিজ্ঞাপন। তাই এর থেকে উত্তরনের উপায় হল Luna app ইউজ করা। বেশ কাজের।
.
WiFi কে রাখুন অশ্লীলতা মুক্ত (iOS ডিভাইসের জন্যে):
প্রথমে setting এ যান তারপর পরপর wi-fi তে গিয়ে ওয়াইফাই কানেক্ট করুন। এর পর পাশে i (আই) চিহ্নতে ক্লিক করুন। একটু নিচে গিয়ে দেখুন লেখা আছে Configure DNS ওটাতে ক্লিক করুন।Manual সিলেক্ট করে দিন। এরপর add server অপশনে গিয়ে নিচের দুইটা সার্ভার এড্রেস বসিয়ে দিন।
185.228.168.168
185.228.169.168
চাইলে অন্য DNS সার্ভারও বসাতে পারেন। আমার মতে এই সার্ভারটা বেশ ভাল এডাল্ট কন্টেন্ট ব্লক করার জন্য। আরো একটি পদ্ধতি এপ্লাই করতে পারেন limit adult content যেটা ios devices গুলোতে ডিফল্টই থাকে। কিভাবে করবেন তার লিংক নিচে দেয়া হল।

———-

Sharing is Caring:

দৈনন্দিন আমরা একজন অন্যের কাছ থেকে বিভিন্ন ফাইল, ডকুমেন্ট আদান প্রদান করে থাকি। আর এর জন্যে আমরা ডিপেন্ড করি ShareIt নামক এপ উপর। কিন্তু এই শেয়ার ইট এ মুভি/ নাটক/ গান সাজেস্ট করে, বেপর্দা মেয়েদের বাজার যেন! এক্ষেত্রে ShareIt এর অ্যাড ফ্রি মড ভার্সনটি ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া ShareIt মুছে ফেলে Mi Drop ইউজ করতে পারি। কোন এড নেই আর স্পিড বেশ ভাল। কোন অংশেই শেয়ার ইট থেকে কম নয়। ইউজ করলেই বুঝতে পারবেন। Mi drop play store link: https://tinyurl.com/y5v5m2ze
.
অনেকেই চিন্তা করছেন আচ্ছা আমি নাহয় এই এপটা ইউজ করলাম কিন্তু যার কাছে ফাইল নিব বা দিব তার যদি এই এপটি ইন্সটল না থাকে তখন? এর সমাধানও আছে। এপটি ওপেন করুন। নিচে অপশন আছে Share Mi Drop, ক্লিক করে Bluetooth দিয়ে দিয়ে দিন বন্ধুকে। মাত্র কয়েক mb। এরপর সে ইন্সটল করে ফেলবে তার মোবাইলেও। ব্যস এখন থেকে ফাইল আদান প্রদান হোক বিজ্ঞাপনহীন।

———-

Warning:

পদ্ধতি গুলো এপ্লাই করার পর ভুলেও দেখার চেষ্টা করবেন না যে অশ্লীলসাইটগুলো ব্লক হল কিনা। ইন্টারনেট জগতে বাজে সাইটের সংখ্যা কত তা আপনি ভাবতেও পারবেন না। আপনার কাজ হল পদ্ধতিগুলো এপ্লাই করা চেক করা না। DNS server এর কাজ ও নিজেরটা নিজেই করে নিবে। কিভাবে কাজ করবে আপনার না বুঝলেও চলবে। আপনার উদ্দেশ্য তো সাইটগুলো ব্লক করা তাই না? আমি আবারও বলছি জাস্ট এপ্লাই, ডু নট চেক।

———-

আমাদের শুভাকাঙ্ক্ষী ভাইদের শেয়ার করা Android App যা আপনাকে পর্ন দেখা থেকে ডিস্ট্র্যাক্ট করতে সাহায্য করবে ইনশাআল্লাহ-

Keep Me Out– এই অ্যাপটির কাজ হলো ফোন লক করে ফেলা। অ্যাপটি ওপেন করলে ‘Lock for ___ minutes/Hours’ বলে একটা অপশন আসবে, সেখান থেকে আপনি যেই সময়টুকু নির্ধারণ করবেন ততক্ষণের জন্য ফোন লক হয়ে যাবে। আপনি শতচেষ্টা করলেও ফোনটি আর চালাতে পারবেন না। তো? এটা পর্নোগ্রাফি থেকে মুক্তি পেতে কীভাবে সহয়তা করবে?

আপনাকে খুব ভেবেচিন্তে ওই সময়টা খুঁজে বের করতে হবে যখন আপনি পর্ন দেখেন, অধিকাংশ মানুষই গভীর রাতে পর্ন দেখতে পছন্দ করে থাকে। এক্ষেত্রে করণীয় হলো; রাত ১১ টা বাজার সাথে সাথে এই অ্যাপের সাহায্যে সকাল ৮টা পর্যন্ত মোবাইল লক করে ফেলা। বা আপনি যখন পর্ন দেখেন ওই সময়ের আরো আগেই এই অ্যাপের সাহায্যে মোবাইলকে লক করে ফেলা, এবং কমপক্ষে ১ ঘন্টার জন্য লক করে রাখা। ততক্ষণে পর্নের আসক্তি চলে গেলে তারপর মোবাইল ইউজ করা। আশা করি বোঝাতে পেরেছি। একটু ট্রাই করে দেখুন, ইনশাআল্লাহ সফল হবেন।

পর্ন আসক্তদের রাতে মোবাইল না চালানোটাই উত্তম, তাই ১১-৮ টা পর্যন্ত মোবালটি লক করেই রাখুন। এছাড়াও যখনই একটু মন চাইবে সঙ্গে সঙ্গে ১ ঘন্টার জন্য লক করে ফেলুন। আল্লাহ সকলকে সফলতা দান করুন।

এমন আরেকটা এপ Lock My Phone । উপরেরটা ভালো কাজ না করলে এটাও ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

———-

সর্বশেষ কয়েকটি কথাঃ

পদ্ধতিগুলো এপ্লাই করেই অনেকেই এর থেকে যথাযত উপকৃত হতে পারবে না যদি না সে নিজের উপর কন্ট্রল করা না শিখে। কারন,  আমরা যত সফটওয়্যারই ব্যবহার করি না কেন সবগুলোর কোন না কোন glitch আছে। সহজেই ফাকি দেয়া যায়। তাই এদের ভরসায় বসে থাকলে হবে না, নিজের মন থেকেই রেসিস্টেন্স নিয়ে আসতে হবে। যত যাই হোক আমি পর্ন দেখবো না চটি পড়বো না মাস্টারবেট করবো না- এইরকম দৃঢ়তা লাগবে ভাই। নিজের মন কে শাসন করতে হবে। যেভাবে ট্রেইনিং দেয়া হয় বিশেষ কাজে দক্ষ শ্রমিক গড়ে তুলতে সেভাবে নিজের মন কে, নফস কে ট্রেইন করতে হবে। তাকে বোঝাতে হবে এক পর্ন বা চটি বা হস্তমৈথুন কিভাবে মনকে কলুষিত করে, হতাশা বাড়িয়ে দেয়, কিছু না পাওয়ার তাড়না তীব্রভাবে বাড়ায় তোলে, ইবাদত নষ্ট করে, মানুষকে পশুতে পরিনত করে। এভাবে ট্রেইন আপ করুন নিজের মনকে।
পর্ন ব্লক সফটওয়্যার অনেকটা সেফটি রিং গুলার মত, যেই রিং ধরে ধরে সাঁতার শেখা শুরু হয় বা এক্সপার্ট ড্রাইভার এর মত যে আপনাকে সতর্ক করবে গাড়ি চালানো শেখার সময়। এরা শর্ট টার্ম সাপোর্ট দিবে, কিন্তু দিনশেষে আপনাকেই হাল ধরতে হবে, নিজেকে ডেভেলপ করতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত আপনার এই উপলব্ধি না আসবে যে এই পর্ন এইটা অশ্লীল, এটা অসভ্য, এটা জঘন্য, এটা ক্ষতিকারক, এর ক্ষতি ভয়াবহ, এটা চরিত্র ধ্বংসকারী ততক্ষন পর্যন্ত আপনি এই গোলক ধাঁধা থেকে বের হতে পারবেন না।

“নির্জন মুহূর্ত হলো আপনার আসল চরিত্র’’ -শাইখ আহমাদ মুসা জিবরীল

তোমরা যা কিছু কর আল্লাহ তা পরিপুর্ণরূপে জানেন’’ [সূরাঃ তাওবাহ, আয়াত ১৬]

শেয়ার করুনঃ
বিষে বিষক্ষয়

বিষে বিষক্ষয়

বিসমিল্লাহির রহমানীর রহীম ।

পর্ন আসক্তি ছাড়ার জন্য পর্ন ওয়েব সাইট ব্লক করার সফটওয়্যার বা অ্যাপ্স ইনস্টল করা খুবই জরুরী। “পর্ন দেখতে মন চাইলো, হাতের মুঠোয় হাইস্পিড ইন্টারনেট, দুটো ক্লিক, তারপর পর্ন মুভির বিশাল ভান্ডার”, এরকম অবস্থায় থাকলে পর্ন আসক্তি থেকে বের হয়ে আসা দুঃসাধ্য।

এই লেখায় আমরা আপনাদের এমন কিছু সফটওয়্যার, অ্যাপ্সের সন্ধান দেবো যা দিয়ে আপনি অনলাইনের ফিতনা মোকাবেলার রসদ পেয়ে যাবেন ইনশা আল্লাহ্‌।

K9 সফটওয়্যার: (বর্তমানে এই সফটওয়্যার আর ব্যবহার করা যাচ্ছে না)

যতগুলো  পর্ন ব্লকিং সফটওয়্যার আছে তাদের মধ্যে K9 Web Protection সফটওয়্যার আমাদের সবচেয়ে পছন্দের। এ K9 সফটওয়্যার সকল কাজের কাজি। শুধুমাত্র এ একটি সফটওয়্যার ইন্সটল করেই আপনি আপনার পিসিকে পর্নসাইটে প্রবেশের জন্য অভেদ্য করে ফেলতে পারবেন ইন শা আল্লাহ্‌!

K9 সফটওয়্যার ইন্সটলের টিউটোরিয়াল
K9 সফটওয়্যার ডাওনলোড করুন এখান থেকে
K9 সফটওয়্যার ইন্সটল করার পিডিএফ টিউটোরিয়াল পাবেন এখানে

K9 এর বিকল্প হিসেবে CleanBrowsing DNS Family Filter ইউজ করুন। বিস্তারিতঃ https://lostmodesty.com/2019/05/muktobichoron/ অথবা https://cleanbrowsing.org/guides/windows

এন্ড্রয়েড ফোনে পর্ন সাইট ব্লক করা:

খুবই জনপ্রিয় এক পর্ন সাইট Women and Tech শিরোনামের লেখায় বলেছে, তাদের ভিযিটরদের মধ্যে শতকরা ৭২ জনই মোবাইল ফোন ব্যবহার করে তাদের সাইটে ব্রাউয করে থাকে। ২০১৭ সালে করা জুনিপার রিসার্চ থেকে দেখা যাচ্ছে প্রায় ২৫ কোটি মানুষ মোবাইল ফোন অথবা ট্যাবলেট ব্যবহার করে পর্ন ভিডিও দেখেছে। ২০১৩ সালের তুলনায় যা প্রায় শতকরা ৩০ ভাগ বেশি। [1]

স্মার্টফোনের উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে স্মার্টফোন ব্যবহার করে পর্ন দেখার পরিমান। একটা মোবাইল ফোন সাথে রাখতেই হয়, ল্যাপটপ বা পিসি থাকা ততোটা জরুরী না, দামেও সস্তা। সাইযে ল্যাপটপ বা পিসির চেয়ে অনেক ছোট হওয়ায় যে কোন যায়গাতেই নিয়ে যাওয়া যায়, বাথরুমে, কাথার নিচে,আড়ালে আবডালে, চিপায় চাপায়; সবখানেই। কাজেই পর্ন দেখার মাধ্যম হিসেবে মোবাইল ফোন যে পর্ন আসক্তদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে থাকবে তা বলাই বাহুল্য। বাচ্চাকাচ্চাদেরও পর্ন আসক্তির সম্ভাব্য একটা মাধ্যম হচ্ছে স্মার্ট ফোন। বাচ্চা, টিনেইজার থেকে শুরু করে সকল বয়সী মানুষকে পর্ন এর অন্ধকার জগত থেকে দূরে রাখার জন্য ইন্টারনেট ফিল্টারিং সিস্টেমের সাহায্য নেওয়া খুবই জরুরী।

আফসোসের বিষয় হলো যে মোবাইল ফোন দিয়ে সবচেয়ে বেশী পর্ন সাইটে ব্রাউয করা হয়, সেই মোবাইল ফোনে পর্ন সাইট ব্লক করার জন্য তেমন ভালো কোন অ্যাপ্স নেই। যেগুলো আছে সেগুলোও স্বয়ংসম্পূর্ণ না বা ফ্রি না। টাকা দিয়ে কিনতে হয়। টাকাটা বড় কথা না, বড় কথা হচ্ছে অনলাইনে অ্যাপ্স কেনার জটিলতা এবং সেই সাথে অ্যাপ্স গুলোর স্বয়ংসম্পূর্ণ না হওয়া। এ জটিলতা থেকেই স্মার্টফোনগুলোতে আর পর্ন ব্লকিং অ্যাপ্স ইন্সটল করা হয়ে ওঠেনা।

অ্যাপ্স বানানোতে ওস্তাদ এমন ভাইদের কাছে অনুরোধ থাকবে আপনারা এ বিষয়টি নিয়ে একটু ভাবুন। আল্লাহ্ (সুবঃ) আপনাদের যে যোগ্যতা দিয়েছেন সেটা কাজে লাগিয়ে অত্যন্ত প্রয়োজনীয় কিন্তু অবহেলিত এই ব্যাপারটিতে একটু মনযোগ দিন। সমগ্র মুসলিম উম্মাহ তথা মানবজাতি আপনাদের দিকে চেয়ে আছে। আল্লাহর ওপর ভরসা করে কাজে হাত দিন, আল্লাহ্ সহজ করে দিবেন ইন শা আল্লাহ্। জোড়াতালি দিয়ে কীভাবে এন্ড্রয়েড ফোনে পর্ন সাইট ব্লক করা যায় চলুন,আলোচনা করা যাক –

১) ওপেন DNS  Address পরিবর্তনের মাধ্যমে:

কেবল ওয়াইফাই দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করলে এ পদ্ধতিতে পর্ন সাইট ব্লক করা যাবে। মোবাইল

ডাটা দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করলে এই পদ্ধতি ব্যবহার করে পর্ন সাইট ব্লক করা যাবে না ।

ভিডিও টিউটোরিয়াল – http://bit.ly/2mwVkD5

২) স্পিন ব্রাউযারের মাধ্যমে:

এটি আমাদের  পছন্দের পদ্ধতি। বেশ কার্যকরী। প্রয়োজনীয় এই অ্যাপ্সগুলো নামিয়ে নিন প্লে স্টোর থেকে,

Spin Browser  – http://bit.ly/2cJ5ufM

App Lock – https://tinyurl.com/k5zk2zr

ভিডিও টিউটোরিয়াল-   http://bit.ly/2FlCLcI

ইউটিউবের ফিতনা থেকে রক্ষা:

ধাপ ১. আপনার ইউটিউব হিস্ট্রি ক্লিয়ার করুন। হতে পারে আপনার এই একাউন্ট অনেক আগেকার, হয়তো ইউটিউবে এসে গান শুনতেন, মুভি ক্লিপ্স দেখতেন বা এমন ভিডিও দেখতেন যেখানে বেপর্দা মেয়ের আনাগোনা ছিল। ইউটিউব কিন্তু আপনার ভিউ এর উপর বেইজ করেও অনেক ভিডিও সাজেস্ট করে। ওরা চায় যে আপনি যে রুচির লোক আপনাকে সে রকম ভিডিও পরিবেশন করতে। আর এ জন্যই, আপনি যদি বিভিন্ন ইসলামিক ভিডিও বারবার দেখে থাকেন তাহলে তারা ঐ ধরণের টাইপের ভিডিও গুলো সাইডবারে দেখাতে থাকে। অশ্লীল ভিডিও’র ক্ষেত্রেও একই নীতি।

ধাপ ২. এরপর যেসব চ্যানেল আপনি সাবস্ক্রাইব করেছেন, সেখানে যান। যেগুলা এরকম বেপর্দা মেয়েতে ভরা সেগুলা আন্সাবস্ক্রাইব করুন।

ধাপ ৩. এরপর যেগুলা পাশে আসবে বেপর্দা ভিডিও, অপশন থেকে not interested দিতে থাকুন, কিছুদিন পর দেখবেন আর আসছে না।

(দরকার হলে পুরনো জিমেইল আইডি ইউজ করা বাদ দিয়ে একটা নতুন আইডি খুলে নিন ইউটিউবের জন্য। এতে করে নতুন করে সাজাতে পারবেন হোমপেজ।)

ধাপ ৪: রাউটারে DNS address বদলে নিন। এতে ইউটিউবের Restriction Mode বাই ডিফল্ট অন থাকবে। বিস্তারিত- https://lostmodesty.com/2019/05/muktobichoron/

  • লগিন ছাড়া এমনি গেস্ট হিসেবে ইউটিউব ব্যবহার করবেন না।
  • শুদ্ধ ইলম প্রচার করে এমন ইসলামিক চ্যানেলগুলো সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। তবে মাসআলা জানতে ইউটিউব এর উপর ভরসা করবেন না। উল্টো বিভ্রান্ত হবেন, নিকটস্থ আলিমদের শরণাপন্ন হন।

এছাড়া http://viewpure.com এ যেয়ে কোন ভিডিওর লিংক পেস্ট করে ভিডিও অ্যাক্সেস করলে কোন সাজেশান লিস্ট আসবে না ইন শা আল্লাহ্। অশ্লীলতা থেকে কিছুটা হলেও নিরাপদ থাকা যাবে।

এন্ড্রয়েড ফোনে ইউটিউবের ফিতনা থেকে রক্ষা পাবার ব্যাপারে আলোচনা করা হয়েছে নিচের দু’টি ভিডিওতে। দেখতে ভুলবেন না।

১) http://bit.ly/2FzKipk
২) http://bit.ly/2mzHpfz

প্রয়োজনীয় অ্যাপ্স ডাউনলোড লিংক-

Youtuze – https://tinyurl.com/yacqurj4
App Lock – https://tinyurl.com/k5zk2zr

অনাকাঙ্ক্ষিত অ্যাড ব্লক:

অনলাইনের অনাকাঙ্ক্ষিত অ্যাড  ভয়ংকর সমস্যার কারণ হতে পারে। তাছাড়া এসব অনাকাঙ্ক্ষিত অ্যাড ব্রাউযিং স্পিড অনেক কমিয়ে দেয়।অনলাইনের অযাচিত অ্যাড দূরকরার জন্য addons হিসেবে Adblock ব্যবহার করতে পারেন। Firefox, chrome দু’টোর জন্যই পাবেন।

১) Google Chrome এর জন্য Adblock – http://bit.ly/1bia3G6

২) Firefox এর জন্য Adblock –  https://mzl.la/2CI98om

এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য নামিয়ে নিন এ দুটি এপ্স।

AppBrain Ad Detector – http://bit.ly/2dhkPTo

Free Adblocker Browser – http://bit.ly/1PGjcNY

কীভাবে ডাউনলোড এবং ইন্সটল করতে হবে তা ধাপে ধাপে জানার জন্য দেখুন নিচের ভিডিও টিউটোরিয়াল – http://bit.ly/2CHMJrk

এছাড়া ওয়াইফাই রাউটারের অ্যাড্রেস পরিবর্তন করেও পর্নসাইট ব্লক করা যায়।  পড়ুন- http://lostmodesty.com/muktobichoron

কে, কীভাবে ব্যবহার করবেন:

১) আপনি নিজে পর্ন আসক্ত হলে একদম কাছের কোন বন্ধুর সাহায্য নিয়ে এই অ্যাপ্স/ সফটওয়্যার গুলো ইন্সটল করে নিন। শুধু আপনার বন্ধু পাসওয়ার্ড জানবেন,আর কেউ না। এতে চাইলেও আপনি প্রোটেকশান ভেঙ্গে অনলাইনে পর্ন দেখতে পারবেননা।

২) আপনার স্বামী পর্ন আসক্ত হলে তার সঙ্গে আলোচনা করে নিয়ে অ্যাপ্স/ সফটওয়্যার গুলো ইন্সটল করবেন। শুধু আপনি পাসওয়ার্ড জানবেন।

৩) আপনার সন্তানকে অনলাইন পর্নোগ্রাফি থেকে বাঁচানোর জন্য আপনি অ্যাপ্স/ সফটওয়্যার ইন্সটল করবেন। আপনার সন্তানকে কোনমতেই পাসওয়ার্ড জানতে দেবেন না। অ্যাপ্স/ সফটওয়্যার ইন্সটল করার আগে তার সাথে খোলাখুলি আলোচনা করে নিলে ভালো হয়।

কোন অ্যাপ বা সফটওয়্যার খুঁজে পেতে, ডাউনলোড করতে কিংবা ইন্সটলে কোথাও কোন সমস্যা হলে নিশ্চিন্তে যোগাযোগ করতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেইজের ইনবক্সে – www.facebook.com/lostmodesty

অথবা মেইল করতে পারেন এ ঠিকানায় – [email protected]

সফটওয়্যার/এপ্স ইন্সটল করার সাথে সাথে অন্তরে আল্লাহর ভয় বাড়ানোর জন্যেও চেষ্টা করতে হবে। ইন ফ্যাক্ট অন্যান্য সব কিছুর চেয়ে এটা বেশি জরুরি। নিজের মনে যদি আল্লাহর ভয় থাকে, স্বদিচ্ছা থাকে, তাহলে অন্য কোন উপায় ছাড়াও পর্ন আসক্তি কাঁটিয়ে ওঠা যাবে ইন শা আল্লাহ। কিন্তু অন্তরে ব্যাধি দূর না হলে, যতো অ্যাপ্স-সফটওয়্যার, কিংবা টিপস ব্যবহার করুন না কেন। এক সময় না এক সময় পা ফসকাবেই।  ওয়ামা তাউফিকি ইল্লা বিল্লাহ।

রেফারেন্সঃ

[১] Juniper Research, “250 Million to Access Adult Content on their Mobile or Tablet by 2017, Juniper Report Finds – http://bit.ly/2D0Hq3M

শেয়ার করুনঃ