১. আমাদের কথা

আমাদের পরিচয়

আমরা লস্টমডেস্টি টিম, কাজ করছি অশ্লীলতা আর নোংরামির বিরুদ্ধে। আমাদের প্রত্যাশা সেদিনের যেদিন আমাদের ভাই আর বোনগুলো হবে কলঙ্ক মুক্ত, নিষ্পাপ। আমরা স্বপ্ন দেখি সুন্দর ঝলমলে সোনালি সকালে ছেয়ে যাক প্রতিটি তরুণ-তরুণীর জীবন। পরীক্ষার আগের রাতের এক পাগলামি থেকে শুরু হল আমাদের এ পথচলা…বিস্তারিত জানতে পড়ুনঃ
.

'মুক্ত বাতাসের খোঁজে' বই কোথায় পাবো?

‘মুক্ত বাতাসের খোঁজে’ বই নিয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে এই পেজ দেখুন- মুক্ত বাতাসের খোঁজে

সেমিনার আয়োজন ও লিফলেট বিতরণ করতে চাইলে

সারাদেশে চলছে পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে সচেতনতামূলক সেমিনার ও লিফলেট বিতরণ প্রোগ্রাম। আপনিও যোগ দিন আলোর মিছিলে। আমাদের সাথে কাজ করতে এই পেজ দেখুন- http://lostmodesty.com/onupomuthan/

আমাদের ব্লগসাইটের অন্যান্য পেজগুলো

চলচিত্র – ‘মুক্ত বাতাসের খোঁজে’ বই থেকে চিন্তার খোরাক জাগাবে এমন কিছু ভাবনা, তথ্য ও ঘটনা নিয়ে এ সিরিজটি সাজানো।

শুভ্রতার ব্যাকরণ – আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা সবগুলো ভিডিও পাওয়া যাবে এই পেজে।

আলিমদের মণিমুক্তা – আলিমদের কথাগুলো অনুশোচনা-অনুপ্রেরণার যুগলবন্দী হয়ে অন্তরকে নাড়া দিবে এই আশায়… 

যোগাযোগ – পর্ন/ মাস্টারবেশন আসক্তি নিয়ে জিজ্ঞাসা বা আমাদের কার্যক্রম নিয়ে সাজেশন থাকলে যোগাযোগ করতে পারেন। 

২. পর্নোগ্রাফি, মাস্টারবেশন, চটিগল্প – মানবতার জন্য হুমকি

অনিবার্য যত ক্ষয়

পর্ন আসক্তদের খুব কমন একটা প্রশ্ন করতে দেখা যায় – আমি তো শুধু দেখছিই , কিছু করছি না , কারো কোন ক্ষতি করছিনা ইত্যাদি। এই প্রশ্নগুলোর মোক্ষম উত্তর পাবেন এখানে। এই লিখা গুলোতে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে পর্ন আসক্তি কিভাবে ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ এবং রাষ্ট্রকে এগিয়ে নিয়ে যায় ধ্বংসের দিকে।

অবশ্যই দেখবেন এই ভিডিওগুলোঃ

পর্ন কি সেক্স এডুকেশনের বিকল্প হতে পারে?

জীবনের দশ বারোটা বসন্ত পার হয়ে যাবার পর দেহ ও মনে অন্যরকম একটা পরিবর্তন আসে। মন কি জানি চায়। বিপরীত লিঙ্গের প্রতি, নারী পুরুষের শরীরটার প্রতি অদম্য একটা কৌতূহল জেগে ওঠে। কিছুদিন আগেও এই কৌতূহল মেটানো কঠিন ছিল। থ্রিজি, ফোরজির যুগে আজ সেটা পানির মতো সোজা। এটা খুব বেশী খারাপ কিছু হত না ,যদি বাবা মা বা অভিজ্ঞ কারো নিকট থেকে তারা কৌতূহল গুলো মেটাতো। কিন্তু দুঃখের বিষয়, সেক্স এডুকেশানের জন্য তারা ঢুঁ মারছে ইন্টারনেটের অন্ধকার গলিতে বা পর্ন/চটি গল্প গুলে খাওয়া কোন ইঁচড়ে পাকা বন্ধুর কাছে। আর তখনোই জ্বলে উঠছে বিশাল এক দাবানলের প্রথম অঙ্গারটা। অনেকে মনে করেন, পর্নোগ্রাফি সেক্স এডুকেশনের বিকল্প। একটু আধটু দেখলে ক্ষতি নেই বরং তা যৌন মিলন নিয়ে প্রাথমিক পাঠ দান করছে। আসলেই কি তাই? পড়ুনঃ
.

বিজ্ঞান তো বলছে মাস্টারবেশন কোন সমস্যা না, তাহলে?

খুবই অবাক লাগে যখন দেখি একদল মানুষ মাস্টারবেশনের পক্ষে প্রচারণা চালায়; ধর্মে নিষেধ করেছে তো কি হয়েছে, বিজ্ঞান আমাদের বলছে এটা শরীরের জন্য উপকারী, এর কোন ক্ষতিকর দিক নেই, মাঝে মাঝে মাস্টারবেট করলে শরীর ভালো থাকে, টেনশান মুক্ত থাকা যায় ইত্যাদি। পাশ্চাত্যের কিছু দেশে তো রীতিমতো স্কুলের বাচ্চাদের সেক্স এডুকেশানের নামে এই জঘন্য ব্যাপারটাতে উৎসাহী করে তোলা হয়। খুবই দুঃখ লাগে যখন দেখি আমাদের দেশেও মুসলিম নামধারী আল্লাহর কিছু অবুঝ বান্দা এর পক্ষে ফেসবুক, ব্লগে লিখালিখি করছে, ভিডিও বানাচ্ছে। এই সিরিজে প্রথম দুই টা পর্বে আমরা এমন কিছু হতভাগ্য ভাইদের কথা আপনাদের জানাবো মাস্টারবেশন আসক্তি যাদেরকে ধ্বংসের গভীর এক খাদের কিনারায় দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। পরের কয়েকটি পর্বে থাকবে বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে মাস্টারবেশনের ভয়াবহতা। সবশেষে ইসলাম এবং বিজ্ঞানের পয়েন্ট অফ ভিউ থেকে মাস্টারবেশনের ওপর একটা তুলনামূলক পর্যালোচনা করা হবে।
.

নীল রঙের অন্ধকার

পর্ন মুভি বিষাক্ত মাকড়াশার মতো জাল বিছিয়ে রাখে । গ্ল্যামার আর চাকচিক্যে আকৃষ্ট হয়ে যে কেউ আটকে পড়তে পারে এই জালে । একবার জালে আটকা পড়লে সেই জাল ভেদ করে বেরিয়ে আসা অত্যন্ত কঠিন । মাকড়াশা যেভাবে পোকাকে তিলে তিলে মেরে ফেলে পর্ন মুভিও আপনাকে ঠিক সেভাবেই একটু একটু করে ধ্বংস করে ফেলবে । আপনি আস্তে আস্তে হারাবেন আপনার স্বাস্থ্য, আপনার পরিবার, আপনার চাকুরী, এমনকি আপনার ভালবাসার মানুষটিকেও । আমাদের এই সিরিজে আমরা আপনাদের কিছু সত্যিকারের গল্প বলে যাব । গল্পগুলো কিছু পর্ন আসক্ত মানুষের । কীভাবে তারা হারিয়ে ফেলেছেন এই জীবনের মূল্যবান সবকিছুই, নীল রঙের অন্ধকার গহ্বরে কিভাবে তারা ডুবে যাচ্ছেন সেই গল্প ।

ব্যর্থতা আর আর্দ্রতার গল্প!
দীর্ঘশ্বাস আর নীরব আর্তনাদের গল্প!
নষ্ট হবার গল্প!
.

পর্দার ওপাশে

পর্ন মুভি তার গ্ল্যামার আর চাকচিক্যের চোখ ধাঁধানিতে সেই অনেক যুগ আগে থেকেই বলে চলেছে এক মিথ্যা গল্প। এই মিথ্যা গল্প নারী আর যৌনতা সম্পর্কে। এ মুভি গুলোতে নারীদেরকে এমনভাবে উপস্থাপন করা হয় যেন তারা পর্নমুভিতে পারফর্ম খুব খুব উদগ্রীব এবং তারা এটা খুব উপভোগ করছে। কিন্তু প্রকৃত বাস্তবতা হচ্ছে পর্ন মুভির অভিনেতা অভিনেত্রীরা পর্নমুভিতে পারফর্ম করা উপভোগ করেন না। মাত্র পেটের দায়ে তারা এই কাজ গুলো করতে বাধ্য হন। তাদেরকে বিশেষ করে নারীদের চরমভাবে নির্যাতন করা হয়।

পর্ন ইন্ড্রাস্টীর মুনাফার অঙ্কটা বেশ স্বাস্থ্যবান । তাই ডিরেক্টর এবং প্রডিউসাররাও এই অমানবিক কাজ করতে দ্বিধা বোধ করে না । আপনার কাছে পর্ন মুভি তো একেবারেই সহজলভ্য তাই না ? কেবল মাঊসের দুটো ক্লীকের ব্যাপার। তারপরেই পর্ন মুভির অবিরত ভান্ডার এবং আপনার বিকৃত লালসা চরিতার্থ করার সূচনা। কিন্তু নীল স্ক্রীনের গ্ল্যামার দেখে ‘টাসকি ’ খাওয়া আপনি কখনো কি জানতে চেয়েছেন পর্দার ওইপাশের গল্পগুলো। এক একটা স্টীল পিকচার, এক একটা ভিডিওতে আবদ্ধ রয়েছে আপনারই কোন এক বোনের, কোন এক ভাইয়ের হৃদয়ের করুন হাহাকার। পর্ন মুভির হতভাগা অভিনেতা অভিনেত্রীদের, চার দেয়ালের মাঝে বন্দী যতসব আর্তনাদ আর দুঃস্বপ্নের অভিজ্ঞতা গুলোর সবটুকু আমরা হয়তো বুঝতে পারব না। কিন্তু তারপরেও চেষ্টা করতে দোষ কি ? এখানে এমন কিছু পর্ন অভিনেত্রীদের অভিজ্ঞতার বর্ণনা করা হল যারা সেই নরকে ক্ষতবিক্ষত হলেও সেখান থেকে বেঁচে ফিরতে পেরেছেন কোনমতে।
.

চটিগল্প কি পর্ন দেখার মতোই ক্ষতিকর?

এসি রুমে আরামদায়ক বিছানায় শোয়া মা সন্তানের জন্য যেরকম দুশ্চিন্তায় করে, ফুটপাতে শোয়া মা তার সন্তানের জন্য সেইরকম দুশ্চিন্তাই করে। সন্তানের প্রতি মায়ের এ ভালোবাসা নিখাদ, কোন ফরমালিন নেই। আমরা মায়ের এই অপার্থিব ভালোবাসা, বোনের স্নেহের প্রতিদান দিচ্ছি তাঁদের নিয়ে লিখা চটি গল্প পড়ে ! কি কিউট ! আমরা অনলাইনের জগতটাকে এমন অসুস্থ বানিয়ে ছেড়েছি যে বাংলায় টাইপ করে গুগলে কিছু খুঁজতে কোন সুস্থ লোকের প্রবৃত্তি হয় না। আসলেই কি চটিগল্পগুলো স্রেফ নিরীহ বিনোদন? পড়ুন- চটি পড়া কি পর্ন দেখার মতোই ক্ষতিকর?

৩. মিথ্যের মায়াজাল

সভ্যতার সংকট

টিনের চালে সামান্য ফুটো থাকলেও সেই ছিদ্র দিয়ে দিনের আলো ঠিকই প্রবেশ করে। সত্যকে হাজার ধামাচাপা দেবার চেষ্টা করা হলেও সত্য ঠিকই একদিন প্রকাশিত হয়। পাশ্চাত্যের সামরিক, রাজনৈতিক,অর্থনৈতিক চাকচিক্যে চোখ ধাঁধিয়ে যাওয়া কিছু পরাজিত হীনমন্য মানসিকতার মুসলিম আর তাদের শায়খেরা পাশ্চাত্যকে গ্রহণ করেছে প্রভু হিসেবে। পাশ্চাত্য কখনো ভুল হতে পারেনা। পাশ্চাত্য কখনো ভুল করতে পারেনা । পাশ্চাত্যের কথা আমরা শুনলাম আর মানলাম এই হলো তাদের দৃষ্টিভঙ্গি। পাশ্চাত্য নিজেও দাবী করে বসে আছে- উন্নয়ন, শান্তি আর প্রগতির পথে হাঁটতে হলে অনুরসরণ করতে হবে আমাদেরকেই। তাদের ঠিক করে দেওয়া তরীকাতেই মানবতার মুক্তি।

আসলেই কী তাই?
.

নীল নকশা

আলোর কথা বলে তারা । আলোয় আলোয় ভরিয়ে দিতে চায় পৃথিবী । ওরা বলে শান্তি, সমৃদ্ধি আর প্রগতির কথা। কিন্তু ওদের বাতলে দেওয়া পথ অনুসরণ করে এই সভ্যতা ক্রমাগত সুপারসনিক গতিতে এগিয়ে চলেছে অধঃপতনের দিকে। নিকষ কালো আঁধারে ছেয়ে গিয়েছে প্রত্যেকটি মানব আর মানবীর হৃদয়। সুকুমার বৃত্তিগুলো দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে। অদ্ভূত বন্ধ্যা হয়েছে উর্বরা ফাগুন। অথচ তারা প্রথমে বলেছিল আলোর কথা, প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সুখ আর সমৃদ্ধির। শয়তান আর তার দোসরদের প্রতিশ্রুতি সবসময়ই মিথ্যে হয়। প্রথম প্রথম চোখ ধাঁধিয়ে গেলেও, আশার বন্যা বইয়ে দিলেও আলেয়ার পিছনে ঘুরে ঘুরে দিনশেষে মাথা কুটে মরতে হয়। নিশ্চিত ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচতে হলে বুঝতে হবে শয়তানের চক্রান্ত। চিনতে হবে গাদ্দারদের।

অবশ্যই পড়ুনঃ
.

সমকামিতা কি স্বাভাবিক?

ব্যাপারটা দুঃখজনক। LGBT’র শুরুটা হয়েছিল ভন্ড আলফ্রেড কিনসের হাত ধরে। সেক্স নিয়ে অনেক গাঁজাখুরি রিসার্চ করেছিল এই লোকটা। তারপরের দায়িত্বটুকু কাঁধে তুলে নিয়েছিল রক ফেলার ইন্সটিটিউট, প্ল্যান্ট প্যারেন্টহুড,পশ্চিমা মিডিয়া। এরা ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে এই ‘বিজ্ঞামনস্ক’ লোকটার একেবারেই অবৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে করা রিসার্চগুলো বিশ্ববাসীর সামনে উপস্থাপন করেছে। তার রিসার্চ পেপারগুলো যেন আসমান থেকে আসা কোন ঈশ্বরের বাণী । অক্ষরে অক্ষরে মেনে নিতে হবে সব কিছু।

পরবর্তীতে বিজ্ঞানী এবং গবেষকরা আলফ্রেড কিনসের রিসার্চগুলো তুলোধুনো করে ছেড়েছিলেন। কিন্তু যা ক্ষতি হওয়ার তা ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছিল । যৌনতার ব্যাপার স্যাপার গুলো আমেরিকানরা (সে তা সাধারন নাগরিকই হোক বা রাষ্ট্রের নীতি নির্ধারক) দেখেছে আলফ্রেড কিনসের পড়িয়ে দেওয়া চশমার ভেতর থেকেই। তাইতো কিন্ডারগার্ডেনের বাচ্চাদেরকেও সেক্স এডুকেশানের নামে সমকামিতার শিক্ষা দেওয়া হয়, মাস্টারবেট করতে উৎসাহিত করা হয়। কিছু দিন আগে তো ‘সমলিঙ্গ বিবাহ’ আইনও পাশ হয়ে গিয়েছে।

কিন্তু এর চেয়েও দুঃখজনক ব্যাপার হলো পাশ্চাত্যের কিছু স্কলার, দা’ঈ এর সাম্প্রতিক কিছু কর্মকাণ্ড ।উনারা ঘুরিয়ে, পেঁচিয়ে , হিকমাহর আড়ালে সমকামিতাকে স্বাভাবিক ব্যাপার হিসেবে মুসলিমদের গ্রহণ করে নিতে বলছেন।

এই সিরিজে সমকামিতাকে দেখা হয়েছে ভিন্ন দুটি দৃষ্টিকোন থেকে; বিজ্ঞান এবং ইসলাম। আশা করি LGBT নিয়ে সব ধোঁয়াশা দূর হবে।
.

আইটেম সং এবং বলিউডী দুনিয়ার ভন্ডামি

৪. লিটমাস টেস্ট

ড. ভিক্টর বি. ক্লাইনের আসক্তি মডেল

পর্ন আসক্তির সূচনা থেকে চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছাতে বেশ কয়েকটি ধাপ পার হতে হয়। Dr. Victor B. Cline এর মডেল থেকে জেনে নিন আপনার অবস্থান এখন কোথায়… সামগ্রিকভাবে আমাদের দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কেও একটা ধারণা পেয়ে যাবেন। পড়ুন- অশনি সংকেত

যেভাবে বুঝবেন আপনি পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত

আমার সন্তান কি পর্ন দেখছে?

কিভাবে বুঝবেন আপনার স্বামী/স্ত্রী পর্ন দেখে?

৫. ঝেটিয়ে বিদায় করুন বেয়াড়া পর্ন/মাস্টারবেশন আসক্তি

বইয়ের লিখাগুলো একত্রে

পর্ন এবং মাস্টারবেশন আসক্তি দূর করার বেশ কিছু টিপস দেওয়া হয়েছে এই লিখাগুলোতে। মনোযোগ সহকারে পড়ুন এবং সাজেশনগুলোর উপর আমল করুন। হাল ছাড়বেন না, ফাঁকি দিবেন না। অবহেলা করলে দিনশেষে ক্ষতি আপনারই হবে।
.

সন্তানকে কিভাবে বাঁচাবো?

জীবনসঙ্গীর পাশে দাঁড়ান

আমরা অনেকেই যে ভুল ধারনাটা করে বসি সেটা হল পর্ন আসক্তি শুধুমাত্র অবিবাহিত ছেলে/মেয়েদের আছে। কিন্তু আমাদের খোলা চোখে কখনোই ধরা পড়ে না যে মধ্যবয়স্ক বিবাহিত শিক্ষিত অশিক্ষিত দুই ধরণের লোকদের মধ্যেও এই সমস্যা প্রবল। একবার পর্ন আসক্ত হয়ে গেলে সঙ্গীর মাঝে আর প্রশান্তি খুঁজে পাওয়া না, তাকে শুধু ভোগ্য দ্রব্য মনে হয়। এই সিরিজে বিবাহিতদের পর্ন আসক্তির সমস্যা নিয়ে যেমন আলোচনা করা হয়েছে, তেমনি কিছু টিপসও দেওয়া হয়েছে আলহামদুলিল্লাহ্‌।
.

কাটিয়ে উঠুন চটিগল্পে আসক্তি

একটা বিশাল প্রজন্ম গড়ে উঠেছে এবং উঠছে যারা প্রাইমারী স্কুলের গন্ডি পার হবার আগেই চরম অশ্লীলতার জগতটার সঙ্গে পরিচিত হয়ে যাচ্ছে, যারা মা, বোন, কাজিন, ভাবী, খালা, চাচী, মামী এদের নিয়ে লিখা চটি গল্প পড়ে আর রাত দিন এদের নিয়ে সেক্স ফ্যান্টাসীতে ভোগে। চটি গল্পে আসক্তদের নেশা কাটিয়ে উঠতে পথ দেখাবে আমাদের এই লিখাগুলো ইনশা আল্লাহ …
.

ব্লক করুন পর্নসাইট- ইউটিউব-ফেসবুক-শেয়ারইট এর অ্যাড

পর্ন আসক্তি ছাড়ার জন্য পর্ন ওয়েব সাইট ব্লক করার সফটওয়্যার বা অ্যাপ্স ইনস্টল করা খুবই জরুরী। “পর্ন দেখতে মন চাইলো, হাতের মুঠোয় হাইস্পিড ইন্টারনেট, দুটো ক্লিক, তারপর পর্ন মুভির বিশাল ভান্ডার”, এরকম অবস্থায় থাকলে পর্ন আসক্তি থেকে বের হয়ে আসা দুঃসাধ্য। এই লেখায় আমরা আপনাদের এমন কিছু সফটওয়্যার, অ্যাপ্সের সন্ধান দেবো যা দিয়ে আপনি অনলাইনের ফিতনা মোকাবেলার রসদ পেয়ে যাবেন ইনশা আল্লাহ্‌। পড়ুনঃ
.

.
আরেকটা কথা, আমরা যত সফটওয়্যারই ব্যবহার করি না কেন সবগুলোর কোন না কোন glitch আছে। সহজেই ফাকি দেয়া যায়। তাই এদের ভরসায় বসে থাকলে হবে না, নিজের মন থেকেই রেসিস্টেন্স নিয়ে আসতে হবে। যত যাই হোক আমি পর্ন দেখবো না চটি পড়বো না মাস্টারবেট করবো না- এইরকম দৃঢ়তা লাগবে ভাই। নিজের মন কে শাসন করতে হবে। যেভাবে ট্রেইনিং দেয়া হয় বিশেষ কাজে দক্ষ শ্রমিক গড়ে তুলতে সেভাবে নিজের মন কে, নফস কে ট্রেইন করতে হবে। তাকে বোঝাতে হবে এক পর্ন বা চটি বা হস্তমৈথুন কিভাবে মনকে কলুষিত করে, হতাশা বাড়িয়ে দেয়, কিছু না পাওয়ার তাড়না তীব্রভাবে বাড়ায় তোলে, ইবাদত নষ্ট করে, মানুষকে পশুতে পরিনত করে। এভাবে ট্রেইন আপ করুন নিজের মনকে। পর্ন ব্লক সফটওয়্যার অনেকটা সেফটি রিং গুলার মত, যেই রিং ধরে ধরে সাঁতার শেখা শুরু হয় বা এক্সপার্ট ড্রাইভার এর মত যে আপনাকে সতর্ক করবে গাড়ি চালানো শেখার সময়। এরা শর্ট টার্ম সাপোর্ট দিবে, কিন্তু দিনশেষে আপনাকেই হাল ধরতে হবে, নিজেকে ডেভেলপ করতে হবে।

বাথরুমে পর্ন/ মাস্টারবেশনের সমস্যা থাকলে

  • খোলা জায়গায় গোসল করবেন যদি সম্ভব হয়। শরীরে কিছু কাপড় রাখবেন। পেনিস পারতপক্ষে ধরবেন না। তাকিয়ে থাকবেননা। সাবান দেওয়ার সময় বা লোম পরিষ্কার সময় খুব সতর্ক থাকবেন। বাজে চিন্তা মাথায় আসতে পারে এসময়। বিশেষ করে লোম পরিষ্কার করার সময় বাথরুমে যাবার আগে আল্লাহ্‌র কাছে দু’আ করে যাবেন। তিনি যেন আপনাকে হেফাযত করেন।
  • কখনোই মোবাইল নিয়ে বাথরুমে যাবেননা। 
  • বেশি সময় থাকবেন না বাথরুমে। এটা নবীর (সাঃ) সুন্নাহ পরিপন্থী কাজ।
  • বাথরুমে প্রবেশের দু’আ পড়বেন। বের হবার পরেও দু’আ পড়বেন। হিসনুল মুসলিমিন এপ্স দেখে বা দু’আর বই দেখে শিখে নেবেন। লিংক- https://greentechapps.com/apps/hisnulbn

ঘুমানোর আগে মাস্টারবেশনের সমস্যা

  • ঘুমানোর আগে অযু করে নিবেন। পারলে দুরাকাত নামায পড়ে নিবেন।
  • হিসনুল মুসলিম বই বা এপ্স থেকে ঘুমানোর দু’আগুলো পড়ে নিবেন। লিংক- https://greentechapps.com/apps/hisnulbn
  • এরপরও ঘুম না ধরলে উঠে ক্লাসের পড়া পড়তে থাকবেন। 
  • ঘুমানোর সময় কুরআন তিলাওয়াত শুনতে পারেন।
  • লেকচার শুনতে পারেন। পরকাল নিয়ে, নবী রাসূল, সাহাবীদের কাহিনী, যেগুলো অন্তর নরম করে। 
  • দিনে ব্যায়াম করতে হবে। সারাদিন ঘরে বসে শুয়ে থাকলে হবেনা।

কুড়ানো মুক্তো

ফেসবুক ব্রাউজিং করতে করতে অনেক সময় পর্ন এডিকশান এর উপরে বা অশ্লীলতা থেকে দূরে থাকার জন্য রিমাইন্ডার টাইপের বেশ ভালো ভালো লিখা চোখে পড়ে। আমাদের মনে হয়েছে এই লিখাগুলো পর্নমুভির আসক্তি কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে। এ ভাবনা থেকেই এই সিরিজ শুরু করা। প্রতিটা লিখার শেষে এটি কোথা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে সেটি উল্লেখ করার চেষ্টা করা হয়েছে ইনশা আল্লাহ। অনেক ভাইকে অবশ্য ফেসবুকে খুঁজেও পাওয়া যায়নি। আল্লাহ (সুবঃ) প্রত্যেক ভাইকেই উত্তম প্রতিদান দান করুক । লিখা গুলো ভাইদের নাজাতের উসীলা হয়ে যাক। (আমীন)

নীড়ে ফেরার গল্পগুলো...

কিছু তরুণ। সদা হাস্যোজ্জল। কাউকে বুঝতে দেয়না তারা এই হাসিমুখগুলোর আড়ালে কতোটা কষ্ট বয়ে বেড়াচ্ছে। কতটা ঘৃণা করে তারা নিজেদেরকে। বহুদিন আগে তারা করেছিল এক ভুল – মাস্টারবেশন আর পর্ন মুভির অন্ধকার জগতে পা বাড়িয়ে। আজ সেই ভুলের মাসুল দিতে যেয়ে তাদের হাঁসফাঁস অবস্থা। তারপর কিভাবে তারা সেই অন্ধকার অভিশপ্ত জীবন থেকে বেরিয়ে আসলো, শ্বাস নিল মুক্ত বাতাসে, পড়ুন সেই অবিশ্বাস্য সত্য কাহিনীগুলো।
.

৬. রিকোভারি

শারীরিক ক্ষতি রিকভার ও ডাক্তারের লিস্ট

  • প্রথমত পর্ন, মাস্টারবেশন থেকে পুরোপুরি সরে আসতে হবে, এগুলা করতে থাকলে শারীরিক ক্ষতি রিকভার করা সম্ভব না।
  • প্রচুর পানি, শাকসব্জ্‌ ফলমূল, দুধ, কলা, বাদাম, খেজুর কিশমিশ, আঙ্গুর খেতে হবে।
  • কালোজিরা খেতে হবে। (খাওয়ার নিয়মঃ ভর্তা করে ভাত দিয়ে খেতে পারেন। আবার কালিজিরা এর তেল টাও মধু দিয়ে খেতে পারেন। সকালে খালি পেটে এক চা চামচ মধু+এক চা চামচ তেল/ এক চা চামচ মধু+এক চিমটি কালোজিরা)
  • ব্যায়াম করতে হবে (ব্যায়াম নিয়ে টিপস পেতে এই পেজে – https://www.facebook.com/RijaalGym/ যোগাযোগ করুন)
  • রাতে ১১ টার ভেতর ঘুমাতে হবে। দেরি করা যাবে না। সকাল সকাল উঠতে হবে। পারলে দুপুরে একটু ঘুমুতে হবে।
  • আল্লাহর কাছে বেশি বেশি দু’আ করতে থাকুন। আল্লাহ্‌ বলেছেন, ‘আর তোমাদের যদি কোন দুঃখ দৈন্য স্পর্শ করে তখন তা দূর করার জন্য তাকেই তোমরা বিনীতভাবে ডাকতে শুরু কর’। (সূরা আন নাহলঃ আয়াত ৫৩)

এই হলো প্রাথমিক চিকিৎসা।
.

নরমালি পর্ন দেখার ফলে ইরেক্টাইল ডিসফাংশন ( লিঙ্গোত্থানে সমস্যা) বা প্রি ম্যাচুউর ইজাকুলেশন (অকাল বীর্যপাত) হলে পর্ন মাস্টারবেশন ছেড়ে দিলে এবং একটু ভালোমতো খাওয়া দাওয়া করলে ৩-৬ মাস বা কারো কারো আরেকটু বেশি সময় লাগে। আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলবেন না। আর একজন ইউরোলজিস্ট বা স্কিন এন্ড সেক্স এক্সপার্টকে দেখাতে পারেন। যদি আপনার পেনিসে কোনো সমস্যা থাকে উনারা চিকিৎসা করবেন। যদি পেনিসে কোন সমস্যা না থাকে তাহলে উনারা মনোবিদ রেফার করে দিবেন বা নিজে কোনো মনোবিদের কাছে যাবেন। সাইকিয়াট্রিস্ট মানেই পাগলের ডাক্তার না। এতে লজ্জা পাবেন না। আর মনোবিদের পরামর্শ মেনে চলুন ইনশা আল্লাহ্‌। পড়ুনঃ এলাকাভিত্তিক মনোরোগ বিশেষজ্ঞ এবং চিকিৎসকদের লিস্ট

লিঙ্গের সাইজ নিয়ে চিন্তা

  • উত্তেজিত অবস্থায় পুরুষ লিঙ্গের গড় দৈর্ঘ্য হয়ে থাকে ৪.৭ থেকে ৬.৩ ইঞ্চি। অনেকের মতে পেনিসের গড় দৈর্ঘ্য ৫.১-৫.৯ ইঞ্চি। মূলত পর্ন ভিডিও দেখে দেখে বা চটিগল্পের কারণে ছেলেপেলেদের মধ্যে পেনিসের সাইজ নিয়ে মারাত্মকভুল ধারণা তৈরি হয়।
  • তবে আপনার পেনিস যদি লম্বার সর্বনিম্ন ৪ (চার) ইঞ্চিও হয়ে থাকে তাহলেও আপনার স্ত্রীকে তৃপ্তি দিতে আপনার কোনো সমস্যা হবে না। অনেক বিশেষজ্ঞরা আবার এও বলে থাকেন স্ত্রীকে অরগাজম দিতে মাত্র ৩ ইঞ্চি লম্বা পেনিস হলেই যথেষ্ট।
  • বড় পেনিস মানেই বেশি আনন্দ, কথাটা ঠিক নয় ।
  • পেনিস কখনই একেবারে সোজা হয়না । একটু বাকা থাকেই ।
  • পেনিসের গোঁড়া চিকন আগা মোটা এটা কোন সমস্যা নয় । স্কুল জীবন থেকেই রাস্তাঘাটের তথাকথিত হার্বাল, কবিরাজ এবং ভেষজ ডাক্তারদের বিভ্রান্তিকর লেকচার শুনতে শুনতে অনেকের মধ্যেই এ বিষয়ে একটা বদ্ধমূল ভূল ধারণা তৈরি হয়ে আছে ।
  • কোন যাদুকরী তেল বা মালিশ পেনিস ‘তেমন’ বড় করতে সক্ষম নয় । এগুলা ভুয়া ।  আসক্তদের এসব ব্যবহার না করাই ভালো। মালিশ করতে গিয়ে দেখবেন আপনি উত্তেজিত হয়ে মাস্টারবেট করে ফেলছেন, পর্ন দেখে ফেলছেন।
  • বেশি বড় পেনিস হলে মেয়েরা আনন্দ পাওয়ার বদলে ব্যাথা পায় । এমনকি সেটা যৌন আতঙ্কেও রুপ নিতে পারে অনেক নারীদের জন্য। মেয়েরা সাধারণত ছোটো পেনিসেই সন্তুষ্ট থাকে।
  • ক্ষুদ্র পেনিস বলতে ২.৭৬ ইঞ্চির চেয়ে ছোট পেনিস বুঝায় । সেক্ষেত্রে যথাযথ চিকিত্সকের পরামর্শ নিতে হবে।
  • গোঁড়া চিকন আগা মোটা বা বাঁকা পেনিস যৌনমিলনে কোন সমস্যার সৃষ্টি করেনা । এ নিয়ে চিন্তার কিছু নেই।
  • স্ত্রী ছাড়াই পেনিস শক্ত এবং দৃঢ হয়ে যায় এমন কোনো কাজ যেমন: বেগানা নারীর দিকে তাকানো, অশ্লীল সাহিত্য পড়া, কম্পিউটার বা মোবাইলে খারাপ কিছু দেখা থেকে বিরত থাকুন।
  • ৪০ দিনের মধ্য পুরুষাঙ্গের গোড়ার চুল কাটুন।
  • আপনার যৌন স্বাস্থের দিকে নজর দিন। এটাও আপনার শরীরেরই অংশ। নিয়মিত পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ করুন। কারণ পুরুষরা দৈনন্দিন খাবার দাবার থেকেই তাদের যৌন শক্তি লাভ করে থাকে। এই পর্যন্ত পড়ার পর আপনার অনেক উত্তেজনা চলে আসতে পারে। নিজের ভবিষ্যৎ স্ত্রীর সাথে অন্তরজ্ঞ হবার চিন্তা, ফ্যান্টাসি মাথায় আসতে পারে। আল্লাহ্‌কে ভয় করুন। নিজেকে সামলান। অশ্লীল চিন্তা মাথা থেকে দূর করে দিন। ভুলেও অশ্লীল চিন্তায় বুঁদ হয়ে থাকবেন না। তা না হলে আপনি কিছুক্ষণের মধ্যেই পর্ন দেখে ফেলবেন বা মাস্টারবেট করে ফেলতে পারেন। সাবধান। 

https://www.medicalnewstoday.com/articles/271647.php

প্রস্রাবের সাথে বীর্য বের হয়

শুধু প্রস্রাবের সময় মাঝে মাঝে বীর্য যায়, বীর্যের কালার বা গন্ধ চেইঞ্জ না হয় তাহলে ইনশা আল্লাহ্‌ কিছুদিন পর ঠিক হয়ে যাবে। আপনি বেশি বেশি পানি খান, ইসুব গুলের ভূশি খান। পর্ন, মাস্টারবেশন,অশ্লীল চিন্তা একেবারে ছাড়ুন। আল্লাহ্‌র কাছে দু’আ করুন। এক দেড়মাস ওয়েট করুন। ঠিক না হলে ডাক্তারের কাছে যাইয়েন। আর যদি গন্ধ বা কালার চেইঞ্জ হয়ে যায় তাহলে দ্রুত চিকিৎসক দেখান।

অনেক সময় কষা পায়খানার ক্ষেত্রে কোথ দিলে এই তরল যেতে পারে। তাই কোষ্ঠকাঠিন্য বা কষা পায়খানা দুর করুন, প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন, দিন দুইবার করে ইসবগুলের ভুসি পানিতে মিশিয়ে খাবেন,, পরিমিত ঘুমাবেন। এরপরও এই তরল অতিমাত্রায় প্রতিদিন বের হলে সমস্যা বলে বিবেচিত হবে। এর জন্য যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন।

পর্ন/মাস্টারবেট ছেড়ে দিয়েছি, এখন বিয়ে করতে ভয় পাচ্ছি

শারীরিক রিকোভারির জন্য যা যা করতে বলা হয়েছে ফলো করুন। তারপর আল্লাহ্‌র নাম নিয়ে বিয়ে করে ফেলুন ইনশা আল্লাহ্‌। বিয়ের পর বা বিয়ের আগের রাতে https://www.facebook.com/shamsul.shakti ভাইয়ের একটা নোট আছে, সেটা উনার কাছে থেকে চেয়ে পড়ে নিয়েন। (দয়া করে এখন পড়বেন না, নোটটা পড়ে কোনো পাপে জড়ালে তার দায়ভার আমাদের নয়) সব ঠিক হয়ে যাবে ইনশা আল্লাহ্‌। দুশ্চিন্তা করবেন না।

মাথার চুল উঠা , চোখের সমস্যা , চেহারার উজ্জ্বলতা ও স্মরণশক্তি হ্রাস

ভেঙ্গে ফেলো এই কারাগার (পঞ্চম পর্ব) এর ২৫-২৮ নং প্রশ্নের উত্তর দেখুন। 

আমি অনেক শুকনো, বন্ধু বান্ধব মজা করে

৭. রিল্যাপস

রিল্যাপস | স্বপ্নদোষ নিয়ে সমস্যা | পিচ্ছিল রস | স্ত্রী নিয়ে ফ্যান্টাসি

আজ খুব পর্ন দেখতে ইচ্ছে করছে

অনেকদিন পর আজ মাস্টারবেট করে ফেলেছি/ পর্ন দেখেছি

ভাই হতাশ হবেন না। এইটা তেমন কিছুই নয়। আপনি আবার শুরু থেকে শুরু করুন। এখন যদি মন খারাপ করে বসে থাকেন তাহলে শয়তান আপনাকে ওয়াস ওয়াসা দিয়ে পাপ করিয়ে নিবে। কাজেই মন খারাপ করবেন না। আল্লাহর কাছে মাফ চান। আল্লাহ ক্ষমা করে দিবেন। ভাই একদিনে পারবেন না। সময় লাগবে । ইনশা আল্লাহ্‌ একদিন পারবেনই। কতো অসংখ্য মানুষ তওবাহ করে আবার পাপ করে আবার তওবাহ করে ফিরে আসলো। আপনিও ইনশা আল্লাহ্‌ পারবেন।  এই লিখাগুলা পড়ুন-

এই লেকচারগুলো দেখতে পারেন-

৮. তোমরা কি এমনি এমনি জান্নাতে চলে যাবে?

হস্তমৈথুন করলে কি রোজা ভেঙ্গে যায়?

বীর্যপাত হলে রোজা ভেঙ্গে যাবে। না হলে ভাঙ্গবে না। বিস্তারিত পড়ুনঃ https://tinyurl.com/y43j95oh

চিন্তার খোরাক

পর্নমুভি বা মাস্টারবেশন আপনার অন্তর কে কিভাবে কলুষিত করে ফেলে, জীবনের সুখ শান্তি হারিয়ে আপনি ধূসর, রঙহীন জীবন যাপন করেন ,রহমান আল্লাহ্‌র ক্ষমা থেকে কিভাবে এগুলো আপনাকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায়, কিভাবে আপনি নিজের অজান্তেই যাত্রা শুরু করেন জাহান্নামের লেলিহান অগ্নিশিখার রাজত্বে, পর্নমুভি বা মাস্টারবেশনের জালে আপনাকে আটাকানোর জন্য কিভাবেই বা শয়তান ফাঁদ পাতে সেগুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে এই লিখাগুলোতে।
.

তওবা করতে চাই

এই বইটি পড়ুন- আমি তওবাহ করতে চাই কিন্তু… 

আল্লাহ্‌ (সুবঃ) ১০০ জন মানুষ হত্যা করেছে এমন পাপীকেও ক্ষমা করে জান্নাতে দিয়েছেন, তিনি আপনাকেও ক্ষমা করে দিবেন ইনশা আল্লাহ্‌। আল্লাহ্‌র কাছে কান্নাকাটি করুন। মৃত্যু এবং কিয়ামতের আগপর্যন্ত তওবাহর দরজা খোলা থাকে। আপনি তওবাহ করে নিন ভাই। সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে ইনশা আল্লাহ্‌। আমরা আল্লাহ্‌ তাআলার কাছ থেকে যতই দূরে সরে গিয়ে থাকি না কেন, তিনি চান আমরা তাঁর কাছে ফিরে আসি। আমরা যেন কখনই তাঁর ক্ষমার ব্যাপারে হতাশ না হয়ে যাই। আল্লাহ্‌ বলেছেন,
.
“তোমরা (যারা নিজেদের উপর যূলম করেছো) আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। নিশ্চয় আল্লাহর রহমত থেকে কাফের সম্প্রদায়, ব্যতীত অন্য কেউ নিরাশ হয় না। ” [সূরা ইউসূফঃ আয়াতঃ ১২:৮৭]

‘বলুন, হে আমার বান্দাগণ যারা নিজেদের উপর জুলুম করেছ; তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হইও না। নিশ্চয় আল্লাহ সব গোনাহ মাফ করেন। তিনি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু। (সুরা যুমার : আয়াত ৫৩) 

গান শোনা ছাড়তে চাই

সমকামিতা থেকে মুক্তির উপায়

৯. সন্তান, স্বপ্নভঙ্গ, কিছু কথা

আমাদের ছেলে-মেয়ে পর্ন দেখে ! অসম্ভব !

কোন বাবা-মা’ ই বিশ্বাস করতে চাননা তাঁদের সন্তান পর্ন দেখার মতো এতোটা নীচে নামতে পারে । কিন্তু বাস্তবতা বড় কঠোর। Bitdefender এর গবেষনা থেকে দেখা যাচ্ছে, পর্নসাইটে যাতায়াত করে এমন ১০ জনের মধ্যে ১ জনের বয়স দশ বছরের নিচে। এবং এই দুধের বাচ্চা গুলো রেপপর্ন টাইপের জঘন্য জঘন্য সব ক্যাটাগরির পর্ন দেখে। আপনি, আপনার ছোটভাই/বোন বা সন্তানকে যতই নিরীহ,ভদ্র আর ল্যাদা গ্যাদা কাঁচু মনে করেন না নিশ্চিত থাকুন সে একবার না একবার হলেও পর্ন দেখে ফেলেছে এবং অচিরেই তার পর্ন আসক্ত হয়ে যাবার সম্ভাবনা আছে। সর্বনাশ হয়ে যাবার আগেই সাবধান হোন। দাঁত থাকতেই দাঁতের মূল্য বুঝুন। না হলে পরে পস্তাতে হবে।
.

সেক্স এডুকেশন - কী এবং কীভাবে

আপনার সন্তানকে ভালোমতো বোঝান যে যৌনতা নোংরা কিছু না। বাচ্চাদের যৌনতা-সংক্রান্ত বাস্তবতা জানাতেই হবে। আর সেটা আপনার চেয়ে কে ওদের ভালোমতো জানাতে পারবে? লজ্জা করবেন না একদম! বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাচ্চাদের মধ্যে যৌনতা নিয়ে কৌতূহল জাগবে। আপনি যদি আপনার সন্তানের সঙ্গে যৌনতা নিয়ে তাদের বয়সের সাথে যায় এমন পরিমিত আলোচনা না করেন, তাহলে সে তার কৌতূহল মেটানোর জন্য অন্য কারও কাছে যাবে। সেটা হতে পারে বন্ধু, কাযিন, ইন্টারনেট। আর এখান থেকেই পর্ন-আসক্তির সূচনা হতে পারে। সেই সাথে যৌন-নিপীড়িত হবার আশঙ্কাও থাকে। আপনার বাচ্চার যৌনশিক্ষার জন্য কখনোই স্কুলের ওপর নির্ভর করে বসে থাকবেন না। সেই সাথে স্কুল থেকে আপনার বাচ্চাকে সেক্স এডুকেশান কোর্সে কী শেখানো হচ্ছে সেই দিকে কড়া নজর রাখুন, মাঝে মাঝে তার বই ঘেঁটে দেখুন। পড়ুন-
.

যৌন নিপীড়ন: নিরাপদে রাখুন আপনার শিশুকে

১০. হয়নি যাবার বেলা

হয়নি যাবার বেলা

কেন স্বপ্নেরা মরে যায়, কেন উদীয়মান নক্ষত্ররা ঝরে যায়? ড্রাগস, প্রেম এই কালপ্রিটগুলোর কথা সচরাচর সামনে আসে। অভিভাবকেরা এগুলো নিয়ে কথা বলেন তাদের সন্তানদের সঙ্গে। মেনে চলতে না পারলেও (যেমন প্রেম) মোটামুটি সবাই সতর্ক থাকে বা মনের মধ্যে একটা খচখচানি থাকে। এই লিখায় আমরা আলোচনা করব এমন কিছু বিষয় নিয়ে যেগুলো সাধারণত সেরকমভাবে টাইমলাইটে আসেনা, না আসাটাও স্বাভাবিক। এগুলো বর্তমান অস্থির সময়ের নবউদ্ভূত সব সমস্যা। আমাদের বাবামার বা বড়ভাইবোনদের জেনারেশনদের অনেকেরই এ ব্যাপারে বিন্দুমাত্র কোনো ধারণা নেই। পড়ুন- 
.

তোমার চোখে দেখেছিলাম আমার সর্বনাশ

হারাম প্রেম।

সেই রঙিন কৈশোর থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত কতোবার আপনি মায়াময়ীদের প্রেমে পড়েছেন! রুপা,মীরা, নীরা, প্রতীতি, সোমা! আর কতোবার আপনার হৃদয় ভেংগেছে! কতোবার শান্ত, নিরুদ্রপ জীবন ছারখার হয়ে গিয়েছে! দীর্ঘ নির্ঘুম রাত,একলা শুকতারা, নিকোটিনের ধোয়া, পুরোনো ইনবক্স, গভীর দীর্ঘশ্বাস, ঝাঁকড়া চুল,শূন্য মানিব্যাগ, শূন্য পরীক্ষার খাতা, চিড় ধরা ভাতৃত্বের মতো বন্ধুত্ব, মায়ের চোখের জল, বাবার ভীষন আক্ষেপ।

যখন আপনার বন্ধুরা পড়ার টেবিলে ভবিষ্যৎ গড়তে ব্যস্ত,তখন আপনি নিজ হাতে আপনার ভবিষ্যৎ নষ্ট করেছেন। বাবার টাকা নষ্ট করেছেন, মায়ের সংগে মিথ্যা বলেছেন। টেনশান,অস্থিরতা আর উদ্বিগ্নতায় কাটিয়েছেন কত দিন, কত রাত। নিজের সংগে একটু সৎ হোন। সত্যি করে বলুনতো আসলেই কি সুখ পেয়েছেন? আর শান্তি? আসলেই কি দূর হয়েছিল পর্ন আসক্তি?
.

হারাম থেকে পাওয়া সুখ অল্পেই শেষ হয়ে যায়
থাকে শুধু গ্লানি আর লজ্জা
দিনশেষে শুধু থাকে শূন্যতা আর পাপের বোঝা
সেই আমোদপ্রমোদে কি লাভ শেষমেশ যার ফলাফল জাহান্নামের আগুনের শাস্তি?’
-শেইখ খালিদ আর রশীদ

ব্রেকাপ হয়েছে, কোন কিছুই ভালো লাগছেনা

‘দুশো তিপ্পান্নতম প্রেম’ সিরিজটা অবশ্যই পড়বেন। আর আততায়ী ভালোবাসা, শান্তি পাব কোথায় গিয়ে। মৃত্যু-পরকাল-জান্নাত-জাহান্নাম নিয়ে লেকচার শুনবেন। 

১১. বিয়ে নিয়ে কিছু কথা

বিয়ে নিয়ে ইনিয়ে বিনিয়ে

সইতেও পারা যায়না, বলতেও পারা যায়না! লজ্জা শরমের মাথা খেয়ে মুখ ফুটে বললেই যে কম্মো সারা হয়ে যাবে তাও না। লেজকাটা শেয়ালদের অনেকেই আবার দাঁত কেলিয়ে হাসে! বিশাল এক ঝামেলা!
.

কেন বিয়ে মাস্টারবেশনের সম্পূর্ণ সমাধান না

১২. হে বোন

হে আমার মেয়ে

জীবন সায়াহ্নে দাঁড়িয়ে আপন মেয়ের প্রতি একজন বয়োবৃদ্ধ পিতার হৃদয় নিংড়ানো উপদেশ-
.

হে বোন...

হে বোন! শুনে রাখো, পৃথিবীতে আমাদের নারীরাই শ্রেষ্ঠ; যতক্ষণ তারা হেজাবের পাবন্দী করবে, ইসলামের আদাবের প্রতি গুরুত্ব দিবে, ইসলামের আহকামকে আঁকড়ে ধরে থাকবে এবং ঐ সমাজের রীতি-নীতি আপন করে নিবে, যে সমাজ জন্ম দিয়েছিল আয়েশা, আসমা, খানসা ও খাওলার মত অগণিত মহিয়সী নারী। বিস্তারিত পড়ুন- হে বোন…