বিসমিল্লাহির রহমানীর রহীম।

‘হস্তমৈথুন খুব সাধারণ একটা ব্যাপার’, ‘এটা সবাই করে’ ‘এটা এমন একটা যৌন কর্ম যা সৃষ্টির শুরু থেকে সবাই করে আসছে’ এই কথাগুলো বলে বর্তমান প্রজন্মকে হস্তমৈথুনের পক্ষে ব্রেইনওয়াশড করা হচ্ছে। যখন এই ভুল ধারণাগুলোর বিপরীতে যুক্তি দেখান হয় তখন এমন কিছু অর্ধশিক্ষিত এবং মিথ্যাবাদী লোক যারা নিজেদের যৌনবিশেষজ্ঞ দাবি করে এবং যাদের এই যৌন শিক্ষার ভিত্তিই হল ধর্ষণ এবং শিশুকাম, তারা তেড়েফুঁড়ে আসে। “হস্তমৈথুন একটি স্বাস্থ্যকর এবং স্বাভাবিক ব্যাপার” যারা এর বিরোধিতা করছে তাদেরকে নিয়ে উল্টো ব্যাঙ্গ করা হয় এবং তাদেরকে ধর্মান্ধ ট্যাগ লাগিয়ে দেয়া হচ্ছে।পর্ন বা হস্তমৈথুনের পক্ষে যতই বাগাড়ম্বরপূর্ণ যুক্তি দেয়া হোক না কেন বিজ্ঞান কিন্তু বিপরীত কথা বলছে। বিজ্ঞান বলছে হস্তমৈথুন কোনভাবেই সাধারণ কিংবা প্রাকৃতিক কোন ঘটনা হতে পারে না এবং এর স্বপক্ষে প্রমাণও হাজির করছে।

আকা নামক একদল শিকারি গোত্র যাদের কাছে পাশ্চাত্যের সেক্সুয়াল প্রোপাগান্ডা এখনও পৌঁছায়নি তাদের উপর চালানো জরিপের উপর ভিত্তি করে ২০১০ সালের অক্টোবরে একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। সেই রিপোর্ট থেকে বেরিয়ে আসে বেশ কিছু চমকপ্রদ তথ্য। সেই রিপোর্টে বলা হয় – “আমরা তাদেরকে সমকামিতা এবং হস্তমৈথুন নিয়ে জিজ্ঞাসা করেছিলাম এবং আমরা বিস্মিত হয়েছি যে তাদের এ সম্বন্ধে কোন ধারনাই নেই। তাদের সমকামিতা এবং হস্তমৈথুনের কোন পরিভাষা নেই। তাই তাদেরকে বোঝাতেই কষ্ট হয়েছে। আমরা যখন তাদের বুঝাচ্ছিলাম তখন তারা হাসছিল। আমরা ভেবেছিলাম তারা বোধহয় প্রকৃতিগত ভাবে লজ্জাশীল। কিন্তু অস্বাভাবিক হলেও এটাই ওদের বৈশিষ্ট….।”

আকা এবং এঙ্গান্ডু গোত্র দুটির মধ্যে সমকামিতা (গে অথবা লেসবিয়ান) সম্পূর্ণ অপরিচিত। বিশেষ করে আকা গোত্রটিকে সমকামিতা সম্পর্কে বোঝাতে বেশি কষ্ট হয়েছে। তাদের নিজস্ব কোন পরিভাষা না থাকায় বারবার বলে সমকামিতা সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়েছে।

গবেষক দল যখন তাদেরকে বুঝাচ্ছিল তখন তারা সমকামিতা এবং হস্তমৈথুনের কথা শুনে হাসছিল।

সমকামিতার মত হস্তমৈথুন সম্পর্কেও তাদের ধারণা দিতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। তাদের কাছে ব্যাপারটি অস্বাভাবিক এবং তারা বলেছে যে কঙ্গো থেকে দূরবর্তী অঞ্চলে হয়ত এর প্রচলন থাকতে পারে কিন্তু তাদের নিকট এটা অজানা। হস্তমৈথুনের জন্য তাদের নিজস্ব কোন পরিভাষাও নেই। আমরা তাদের পুরুষদের জিজ্ঞেস করেছিলাম যে তারা বিয়ের পূর্বে হস্তমৈথুন করত কিনা কিন্তু তারা সেটাও করত না।

তাদের সবাই বলেছে যে বিয়ের পূর্বে তারা কখনই হস্তমৈথুন করেনি। কল্পনা করুন যে একদল পুরুষ কখনই বিয়ের পূর্বে কিংবা পরে হস্তমৈথুন করেনি!!

“জংগলের অধিবাসীদের মধ্যেও হস্তমৈথুন অপরিচিত। রবার্ট বেইলি (ব্যক্তিগত সংবাদদাতা) একটি প্রজনন উর্বরতা সমীক্ষার জন্য কঙ্গোর ইতুরি জঙ্গলের পুরুষদের থেকে বীর্য সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত ছিলেন। আমরা তার অভিজ্ঞতা জানতে চেয়েছিলাম। তিনি বলেছেন যে পুরুষদের থেকে বীর্য সংগ্রহ করা খুবই কঠিন ছিল। কিভাবে হস্তমৈথুন করে বীর্যপাত করতে হয় তা তাদেরকে বোঝানো যাচ্ছিল না। খোলাখুলি ভাবে জিনিসটা তাদেরকে বলার পর মাত্র তিন থেকে চারটি বীর্য নমুনা তারা সংগ্রহ করতে পেরেছিল। কিন্তু সেই নমুনা গুলো ছিল আবার যোনী হতে নির্গত তরল মিশ্রিত।

খুব অবাক লাগছে? গবেষকরা পুরুষদের বীর্য নমুনা নেয়ার জন্য তাদেরকে হস্তমৈথুন শেখান হল অথচ তারা স্ত্রী মিলনের মাধ্যমে বীর্যপাত করে সেই নমুনা জমা দিল। ওরাল সেক্স এবং পায়ুকাম এই কাজগুলো তাদের নিকট অজানা।

কারন এই ধরনের যৌনাচার প্রকৃতিগত নয়। পর্নএবং প্রোপাগান্ডা ছড়ানোর মাধ্যমে এগুলো জনপ্রিয় বানানো হয়েছে।

“কিন্তু মানুষ যতই পাশ্চাত্যের রাজনীতি এবং অর্থনীতির সাথে পরিচিত হবে বা জড়িয়ে পড়বে ততই তাদের সভ্যতাকে স্বাভাবিক মনে হবে। অথচ বিভিন্ন দেশ হতে প্রাপ্ত তথ্য উপাত্ত যাচাই করে দেখা গেছে যে পাশ্চাত্যদের যৌনাচার অস্বাভাবিক এবং বিকৃত।”

যারা দাবি করে হস্তমৈথুন এবং অন্যান্য বিকৃত যৌনাচার স্বাভাবিক তাদের জন্য এই তথ্যবহুল গবেষণাটি একটি চপেটাঘাত। পাশ্চাত্যের দেশগুলো তাদের বিকৃত যৌনাচার এবং উগ্র যৌনতা নির্ভর একটা সভ্যতা বাকি বিশ্বের উপর চাপিয়ে দিতে চায়। ওবামা প্রশাসন, জাতিসংঘ, কিন্সলে ইন্সিটিউট ইত্যাদির মাধ্যমে তারা আপনার দেশের মানুষকে বিকারগ্রস্ত করে রাখতে চায়।

“সমকামিতা এবং হস্তমৈথুন কর্মস্পৃহা কমিয়ে দেয় এবং তা কোনভাবেই একটি শিশুকে বেড়ে উঠতে সাহায্য করে না।”

“এই গোত্রগুলোর নারী ও পুরুষদের মধ্যে সমকামিতা এবং হস্তমৈথুনের অনুপস্থিতি আমাদের অবাক করেছে। বর্তমানের পাঠ্যবইগুলোতে বলা হচ্ছে উক্ত বিকৃত যৌনাচারগুলো স্বাভাবিক কিন্তু আকা এবং এঙ্গান্ডুর মানুষের যৌন অভ্যাসের সাথে এই ব্যাখ্যা মিলে না।”

বিভিন্ন পাঠ্যপুস্তকে যেভাবে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের কারন, সমকামিতা, হস্তমৈথুন ইত্যাদি যেভাবে তুলে ধরা হয়েছে এই প্রবন্ধটি সেটাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

 

পড়া যেতে পারে এই বইগুলোঃ

১) https://goo.gl/CdqSGW

২) https://goo.gl/nEusPB

৩)https://goo.gl/ZKlSXE

দেখা যেতে পারে এই ভিডিওগুলোঃ

১) https://goo.gl/3DZ0EE

২) https://goo.gl/VVjexP

মাস্টারবেশনের অপকারিতা জানতে পড়ুন এই লিখাগুলোঃ

চোরাবালি প্রথম পর্ব – https://bit.ly/2ObItTt
চোরাবালি দ্বিতীয় পর্ব – https://bit.ly/2Qm0j7D
চোরাবালি তৃতীয় পর্ব – https://bit.ly/2p0HR8l
চোরাবালি চতুর্থ পর্ব – https://bit.ly/2QoRtGb
চোরাবালি পঞ্চম পর্ব- https://bit.ly/2Nzoh0M
চোরাবালি ষষ্ঠ পর্ব- https://bit.ly/2QocEIA
চোরাবালি সপ্তম পর্ব- https://bit.ly/2x9hr81
চোরাবালি অষ্টম পর্ব- https://bit.ly/2NAhrbd
মাস্টারবেশন কী মাসলগ্রোথ এবং এথলেটিক পারফরম্যান্সের ক্ষতি করে?- https://bit.ly/2NzycUa
মিথ্যের শেকল যতো- https://bit.ly/2QpkT7f

রেফারেন্সঃ https://goo.gl/l58VDg

শেয়ার করুনঃ