সাধারণত এই প্রশ্ন করা “ব্রো”এর বয়স ১৮ থেকে ৩০ এর মাঝে হয়। হ্যাঁ, ব্রো বললাম। কারণ আমি কখনো কোন নারী অ্যাথলেটকে এই প্রশ্ন করতে দেখিনি। ঘনঘন মাস্টারবেশনের ফলে মাসল গেইন (অর্জিত মাসল) বা পারফরম্যান্স ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ভয়টা বিশেষত পুরুষদের মাঝে দেখা যায়।

.

মাস্টারবেশন কি আপনার গেইন ধ্বংস করতে পারে? প্রশ্নটির উত্তর দেওয়ার আগে আসুন কিছু পরিসংখ্যানে চোখ বুলানো যাক।

.

মাস্টারবেশন কতটা কমন?

১৫ থেকে ৫০ বছরের মাঝের ৬০-৬৫% পুরুষ বলেছেন তারা আগের মাসের কোন এক সময়ে মাস্টারবেট করেছিলেন। ২৫-২৯ বছরের পুরুষদের মাঝে সংখ্যাটি সবচেয়ে বেশি। [1]

.

কতজন মাস্টারবেট করেন?

৯৫% পুরুষ স্বীকার করেন তারা মাস্টারবেট করেন। সংখ্যাটি বিস্ময়জনকভাবে ৭০% এ নেমে আসে বিবাহিত পুরুষদের বেলায়।

.

ধরা পড়েছেন?

৪১% পুরুষ স্বীকার করেছেন যে তারা মাস্টারবেশনের সময় অন্য কারো কাছে ধরা পড়েছেন। [2]

মাস্টারবেশনের হার:

মোটামুটি ২৫% পুরুষ এক মাসে কয়েক বার মাস্টারবেট করেন। ১৫-২০% পুরুষ এক সপ্তাহে চার বারের বেশি করেন। তবে ৩০ বছরের উপরের পুরুষদের ক্ষেত্রে সংখ্যাটি কমে যায়। বয়স পঞ্চাশের নাগাদ মাত্র ৬% পুরুষ সপ্তাহে চার বারের বেশি মাস্টারবেট করেন। ৭০ বছরের বেশি বয়স্ক পুরুষদের মাঝে ১.৫% আছেন যারা মাসে চার বারের বেশি মাস্টারবেট করেন। [3]

এবারে প্রশ্নে ফিরে আসা যাক। মাস্টারবেশন কি আপনার মাসল গেইন ধ্বংস করতে পারে? আমি বলি, হ্যাঁ!

.

১- মাস্টারবেশন ক্যাটাবোলিক:

মাস্টারবেশনের সাথে হাই ইন্টেন্সিটি ইন্টারভ্যাল ট্রেইনিং এর সাদৃশ্য আছে, যা অতিমাত্রায় ক্যাটাবোলিক। ক্যাটাবোলিক মানে হল, মাসল ধ্বংসকারী।

ক্যাটাবোলিজমের কিছু প্রতিকার আছে। ওগুলো কার্যকর হতেও পারে, নাও হতে পারে।

বিসিএএ (BCAA) বা প্রোটিন খেতে পারেন। কিন্তু সাবধানতার সাথে।

.

২- মাস্টারবেশন টেস্টোস্টেরন কমায়:

আপনি জিমে একেবারে নতুন হলেও আপনি জানবেন যে টেস্টোস্টেরন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মাসল গেইনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল এটা।

মাস্টারবেশন আপনার দেহ থেকে টেস্টোস্টেরন নিঃশেষ করে দিচ্ছে।

গবেষণায় দেখা গেছে একবার মাস্টারবেশনের পর টেস্টোস্টেরন লেভেল উঠে আসতে ৬ দিন সময় লাগে। এর মানে, টেস্টোস্টেরন লেভেল হাই রাখতে চাইলে মাস্টারবেশন ছাড়তে হবে।

অল্প কথায়, মাস্টারবেশনের ফলে টেস্টোস্টেরন লেভেল নেমে যাচ্ছে, আপনার মাসল ক্ষয়ে যাচ্ছে, এতে ইস্ট্রোজেন বাড়ছে। আপনার ওয়ার্কআউটের কোন লাভই হচ্ছে না।

.

৩- মাস্টারবেশনের পর কোন এনার্জি থাকছে না:

আপনি যে-ই হোন না কেন, যতই প্রি-ওয়ার্কআউট এবং স্টিমুল্যান্ট নেন না কেন, মাস্টারবেশনের পর হেভি স্কোয়াট করতে ব্যর্থ হবেন।

এনার্জি খরচ হয়েছে আপনার করা হাই ইন্টেন্সিটির কার্ডিও সেশনের ফলে (মাস্টারবেশনের ফলে), সাথে ছিল টেস্টোস্টেরনের ক্ষয়। আপনার দেহ শকে চলে যায় এবং বুঝে উঠতে পারে না কীভাবে রিকভার করবে।

.

৪- মাসল গ্লাইকোজেন ক্ষয়:

মাসলে শক্তি পেতে যতখানি কার্বোহাইড্রেট খেয়েছিলেন, ওগুলো সবই অত্যন্ত দ্রুত গতিতে নিঃশেষ হয়ে গিয়েছে। যদি কখনো চিন্তা করে থাকেন আপনার মাসল কেন সমতল ভূমির মত, কারণটা আপনি এখন জানেন।

মাস্টারবেশন আপনার মাসলের গ্লাইকোজেনকে টেনে নিচ্ছে এবং সেই সাথে আপনার মাসল গেইনকেও।

৫- এক হাতের মাসল অন্য হাতের মাসলের চেয়ে বড়:

আপনি দুই হাত সমান ভাবে ব্যবহার না করে থাকলে মাস্টারবেশন আপনার দেহকে অপ্রতিসম বানানোর ঝুঁকি থাকে।

টানের মধ্যে থাকার কারণে পেশী তৈরী হয়। আপনি হয়তো ভাবছেন মাস্টারবেশনের ফলে তো পেশী ধ্বংস হয়, তাহলে এটা কিভাবে সম্ভব?

মাস্টারবেশনের সময়ে ঐ বাহুর গেইন হয় শুধু।

অন্য হাতের যথাযথ এক্সারসাইজ না করলে আপনার অপ্রতিসম দেহের ঝুঁকি থেকে যায়।

৬- দুষ্টচক্র:

বাস্তবতা হল, মানুষ জিমে যেতে গড়িমসি করে। আরো খারাপ ব্যাপার হল গড়িমসির পিছনে মাস্টারবেশনের ভূমিকা। এই বিষয়টা সবার শেষে উল্লেখ করার কারণ হল এখানে মোটামুটি সবগুলোকে একখানে করা হয়েছে-

  • মাস্টারবেশনের কারণে জিমে যেতে গড়িমসি
  • এনার্জি না থাকা
  • ক্যাটাবোলিজম
  • মাসল গ্লাইকোজেনের ঘাটতি
  • লো টেস্টোস্টেরনের লেভেল

এটি একটি দুষ্টচক্র, যার ফলে আপনার জিমে যাওয়া হয় না, উপরন্তু যেটুকু গেইন ছিল তাও ধ্বংস হয়।

শেষ কথা

মাস্টারবেশন আপনার গেইনের জন্য ক্ষতিকর। যদি চান যে আপনাকে দেখে মনে হোক আপনি ওয়ার্কআউট করেন, তাহলে গোসলের সময়/একলা রুমের “এক্সট্রা-কারিকুলার অ্যাকটিভিটি” বন্ধ করতে হবে।

যদি কখনো মনে হয় যেরকম মাসল বা শক্তি হওয়া উচিত তা হচ্ছে না, অথবা গেইন আরো হারাচ্ছেন, আপনি এখন জানেন তার কারণ।

(লস্ট মডেস্টি অনুবাদ টিম কর্তৃক অনূদিত)

পড়ুনঃ

চোরাবালি প্রথম পর্ব – https://bit.ly/2ObItTt
চোরাবালি দ্বিতীয় পর্ব – https://bit.ly/2Qm0j7D
চোরাবালি তৃতীয় পর্ব – https://bit.ly/2p0HR8l
চোরাবালি চতুর্থ পর্ব – https://bit.ly/2QoRtGb
চোরাবালি পঞ্চম পর্ব- https://bit.ly/2Nzoh0M
চোরাবালি ষষ্ঠ পর্ব- https://bit.ly/2QocEIA
চোরাবালি সপ্তম পর্ব- https://bit.ly/2x9hr81
চোরাবালি অষ্টম পর্ব- https://bit.ly/2NAhrbd
মিথ্যের শেকল যতো- https://bit.ly/2QpkT7f
সমকামিতা এবং হস্তমৈথুন আদিম মানুষের মধ্যে বিরল!- https://bit.ly/2CQOOT2

আরো পড়ুনঃ

পর্বত জয়ের প্রতিজ্ঞা – https://bit.ly/2Mo58dj

মূল লিখাটিঃ https://goo.gl/Z9nPas

রেফারেন্স:

1) “Statistics | Masturbation | Sexual Health | Sexuality andU.” Sexuality andU. N.p., n.d. Web. 25 Feb. 2015.

2) “Infographic: Masturbation Facts and Statistics.” Pleated-Jeans.com. N.p., n.d. Web. 25 Feb. 2015.

3) “Dear Mona, I Masturbate More Than Once a Day. Am I Normal?”FiveThirtyEight. N.p., n.d. Web. 25 Feb. 2015.

শেয়ার করুনঃ