ফেসবুক ব্রাউজিং করতে করতে অনেক সময় পর্ন এডিকশান এর উপরে বা অশ্লীলতা থেকে দূরে থাকার জন্য রিমাইন্ডার টাইপের বেশ ভালো ভালো লিখা চোখে পড়ে । আমাদের মনে হয়েছে এই লিখা গুলো পর্নমুভির আসক্তি কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে । এভাবনা থেকেই এই সিরিজ শুরু করা । প্রতিটা লিখার শেষে এটি কোথা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে সেটি উল্লেখ করার চেষ্টা করা হয়েছে ইনশা আল্লাহ । অনেক ভাইকে অবশ্য ফেসবুকে খুঁজেও পাওয়া যায়নি। আল্লাহ (সুবঃ) প্রত্যেক ভাইকেই উত্তম প্রতিদান দান করুক । লিখা গুলো ভাইদের নাজাতের উসীলা হয়ে যাক । (আমীন) (ফেসবুক, ব্লগ বা অন্য যেকোন জায়গার কোন লিখা আপনার কাছে যদি মনে হয় এটা পর্ন এডিকশান কাটিয়ে ওঠার ক্ষেত্রে কাজে লাগতে পারে তাহলে আমাদের ফেসবুক পেইজে যোগাযোগের অনুরোধ রইলো )

#

ভাই আমার , তুমি মানুষটা অনেক মুল্যবান । তোমার অনুতপ্ত হৃদয়ের একফোঁটা চোখের জল এই মহাবিশ্বের মালিকের কাছে অনেক অনেক প্রিয় । তোমার জন্য এই পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর মানুষ রাসুলুল্লাহ (সাঃ) নির্ঘুম রাত কাটিয়ে তাঁর রবের কাছে দু’আ করতো । ১৪০০ বছর আগের সেই মানুষটা তোমাকে এতই ভালবাসতো যে , সেই মানুষটা আরাফাতের ময়দানে গ্রীষ্মের তপ্ত রোদে একটানা ছয়ঘন্টা আল্লাহ্‌র কাছে দু’আ করে গেছেন যেন আল্লাহ্‌ (সুবঃ) তোমাকে ক্ষমা করে দেন , তোমাকে তোমার আদি নিবাস জান্নাতে ফিরে যেতে দেন । রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, “ কেউ যদি আমাকে দুটো জিনিসের গ্যারান্টি দেই তাহলে আমি তাকে জান্নাতের গ্যারান্টি দিচ্ছি । সেই দুটো জিনিস হল জিহ্বা এবং দুই রানের মাঝখানের লজ্জাস্থান ।” (রিয়াদুস সালেহীন )

ভাই আমার যে মানুষটা তোমার জন্য তায়েফে পাথরের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েছেন, উহুদের ময়দানে তাঁর দাঁত হারিয়েছেন , যার জীবনের সকল চিন্তা চেতনা ছিল শুধু তোমাকেই ঘিরে সেই মানুষটার সঙ্গে হাশরের ময়দানে যখন তোমার দেখা হবে তুমি তাঁকে কি জবাব দেবে ? কোন মুখ নিয়ে তাঁর সামনে যাবে ? ভাই আমার , একবার কল্পনা কর , তুমি বিভিন্ন এডাল্ট ওয়েবসাইটে ঘুরে বেড়াচ্ছ,বলিউডের আইটেম সং গোগ্রাসে গিলছো এমন অবস্থায় যদি তোমার আম্মু , তোমার আব্বু তোমাকে দেখে ফেলে তাহলে তুমি কি পরিমাণ লজ্জিত হবে ? যদি মৃত্যুর ফেরেশতা তোমার সামনে আসে তখন কি অবস্থা হবে তোমার ? হাশরের ময়দানে তোমাকে যখন এই অবস্থায় তোলা হবে, যখন তোমার হাত তোমার পা, তোমার চোখ যখন তোমার বিরুদ্ধে সাক্ষী দিবে , রুমের দরজা লাগিয়ে, গভীর রাতে একা একা রুমে তুমি কি করতে সেগুলো যখন এই কোটি কোটি লোকের সামনে প্রকাশ করে দেওয়া হবে তখন লজ্জায় তুমি মাটির সাথে মিশে যেতে চাইবে । তখনকার কথাটা একবার চিন্তা কর (কালেক্টেড)

#

পর্ন এবং হস্তমৈথুন থেকে বাঁচার কিছু প্র‍্যাক্টিকাল সলিউশন:

১. দ্বিতীয় কোন রকমের চিন্তা ছাড়া ল্যাপটপ, হার্ড ড্রাইভ, মেমরি কার্ডে থাকা সমস্ত পর্ন ডিলিট করে দিতে হবে। ফাইলগুলো যেন আর রিকভার করা না যায়।

.

২. একাকীত্ব এভয়েড করতে হবে। দ্বীনি ভাইদের সাথে বেশি বেশি উঠা বসা থাকতে হবে। কোন ভাই যদি ব্যস্তও থাকে তারপরেও হালালভাবে তাকে রাজি করাতে হবে যেন উনি সময় দেন। আল্লাহ

ওয়ালা মানুষদের সাথে থাকলে আল্লাহর স্মরণ বাড়বে।

৩. খুচরা নুডিটি যেখানে আছে ঐসব কিছু ত্যাগ করতে হবে। হতে পারে তা নিউজ দেখা, হতে পারে ফেইসবুকের কোন বিদেশি পেইজ, হতে পারে গল্প, রোমেন্টিক কিছু, ব্লগ ইত্যাদি।

৪. পরিচিত অপরিচিত জানাযায় অংশগ্রহণ করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে। জানাযা থেকে এলে মন মানসিকতা অন্য রকম হয়ে যায়। খাটিয়া, কবর, কাফন ইত্যাদির ছবিগুলো পরবর্তী কয়েকদিন চোখে ভাসতে থাকে। এমন কোন অ্যাডিক্টেডকে পাওয়া যাবে না যে কিনা জানাযা থেকে এসে পর্ন দেখতে

বসে যায়।

৫. পর্ন মহিলাদেরকে এক প্রকারের অসম্মানিত ভাবে তুলে ধরে। রাস্তাঘাটে যেকোন মহিলার দিকে চোখে গেলে ঐ পর্নস্টারের মধ্যে খুঁজে বেড়ানো ব্যাপারগুলো র‍্যানডম মহিলাদের মাঝেও খুঁজে বেড়ায়। এভেন বাসায় মাহরামদের বেলাতেও এটা হয়। এটা পর্ন এডিকশানের একটা রোগ। না চাইলেও এসব হতেই থাকবে নিত্যদিন।

৬. পর্ন দেখাই যদি শেষ আমল হয় তবে কি হবে চিন্তা করে দেখা উচিত। সাডেন ডেথ অহরহ হচ্ছে পৃথিবীতে। মালাকুল মাউতের অ্যাপয়েন্টমেন্ট যদি ঠিক পর্ন দেখার পরেই হয় তাহলে কি হবে! দুইটা গুনাহে লিপ্ত থাকা অবস্থায় মৃত্য হলে ঈমান হারা অবস্থায় মারা যেতে হয়। মদ্যপান আর যিনাহ। হাদিসের ভাষায় মুমিনের মাথার উপর থেকে ঈমান তখন সরে যায়।

৭. আল্লাহ যদি তরিত শাস্তি দেন? যদি চোখের শক্তি নিয়ে যান? অন্ধ হয়ে গেলে পর্ন কেন, ঘরের দরজাটাও দেখা হবে না তখন।

৮. অপবিত্রদের সঙ্গিনী সাধারণত অপবিত্রই হয়। বিয়ের পর বুঝলেন আপনার স্ত্রী সতী না। বিয়ের

পরেও ঘৃণ্য কাজগুলো সে করেই যাচ্ছে। আপনি হয়তো ভাবছেন বিয়ের পর পর্ন দেখবেন না, কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। অ্যাডিক্টেডরা বিয়ের পরেও পর্নস্টারদের নেশা থেকে ফিরতে পারে না। It’s now or never situation. থামাতে হলে এখনই। না হয় আর পারবেন না কোনদিনও। সংসার ভেঙ্গে যেতে পারে এই একটি ইস্যুর কারণে। সূরা নূরের ২৬ নম্বর আয়াতে আল্লাহ বলেছেন, “দুশ্চরিত্রা নারীকূল দুশ্চরিত্র পুরুষকুলের জন্যে এবং দুশ্চরিত্র পুরুষকুল দুশ্চরিত্রা নারীকুলের জন্যে। সচ্চরিত্রা নারীকুল সচ্চরিত্র পুরুষকুলের জন্যে এবং সচ্চরিত্র পুরুষকুল সচ্চরিত্রা নারীকুলের জন্যে। তাদের সম্পর্কে লোকে যা বলে, তার সাথে তারা সম্পর্কহীন। তাদের জন্যে আছে ক্ষমা ও সম্মানজনক জীবিকা।”

(কালেক্টেড)

#

বেশী বেশী করে দু’আ করুন – ফরজ নামাজ গুলোর পরে, সিজদাহতে, তাহাজ্জুদের সালাতে । পর্ন , মাস্টারবেশন, আইটেম সং তথা সকল প্রকার প্রকাশ্য এবং গোপন অশ্লীলতা থেকে আশ্রয় চান আপনার রব, আরশের মালিক মহান আল্লাহ্‌ (সুবঃ) এর কাছে ।

“তোমাদের পালনকর্তা বলেন, তোমরা আমাকে ডাক, আমি সাড়া দেব।” [গাফির – ৬০]

“বস্তুতঃ আমি রয়েছি সন্নিকটে। যারা প্রার্থনা করে, তাদের প্রার্থনা কবুল করে নেই, যখন আমার কাছে প্রার্থনা করে।”[আল বাকারা:১৮৬]

মহিমান্বিত আল্লাহ্‌ (সুবঃ) কোন রকম স্তম্ভ ছাড়াই এই আকাশকে উঁচু করে রেখেছেন , আমাকে আপনাকে এই মহাবিশ্বকে সৃষ্টি করেছেন একেবারে শুন্য থেকে । কাজেই তাঁর পক্ষে আপনাকে পর্ন , মাস্টারবেশন থেকে মুক্ত করা কোন ব্যাপার না । আপনাকে সৎ হতে হবে , অন্তর থেকে চাইতে হবে আমি এগুলো থেকে মুক্তি পেতে চাই , সিজদায় লুটিয়ে পড়ে চোখের পানিতে জায়নামাজ ভিজিয়ে আপনার রবের নিকট সাহায্য চাইতে হবে । ইনশা আল্লাহ্‌ তিনি আপনাকে সাহায্য করবেন ।

“জেনে রাখ, অবশ্যই আল্লাহ্‌র সাহায্য অতি নিকটে।” (সুরা বাকারাহ , আয়াত-২১৪)

দু’আর শক্তিকে অবহেলা করবেন না । আমি পার্সোনালী অনেককে চিনি যারা এই দু’আর কারণে পর্নমুভি, মাস্টারবেশন আর আইটেম সং এর কলুষিত জগত থেকে বের হয়ে এসে শ্বাস নিয়েছে মুক্ত বাতাসে । So keep calm and make dua “হে আমার বান্দাগণ! যারা নিজেদের উপর বাড়াবাড়ি করেছো তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না, নিশ্চয় আল্লাহ সমস্ত গুনাহ মাফ করে দেবেন। তিনি অত্যন্ত ক্ষমাশীল ও করুণাময়।”[আয-যুমারঃ৫৩]

(কালেক্টেড)

চলবে ইনশা আল্লাহ ………

কুড়ানো মুক্তো (দ্বিতীয় পর্ব) – https://bit.ly/2p1YeS2
কুড়ানো মুক্তো (তৃতীয় পর্ব) – https://bit.ly/2x3aGoY
কুড়ানো মুক্তো (চতুর্থ পর্ব) – https://bit.ly/2x8qyWv
কুড়ানো মুক্তো (পঞ্চম পর্ব)- https://bit.ly/2x33lpc
শেয়ার করুনঃ